কোহলি আরও এক রেকর্ডে নাম লেখালেন

একের পর এক কীর্তি গড়েই চলেছেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ টেস্টে ব্যাটিং করতে নেমে আরও এক নতুন রেকর্ড গড়েছেন টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের এক নম্বর ব্যাটসম্যান।
ভারতের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে দ্রুততম ৬০০০ রানের মালফলকে পৌঁছানোর কীর্তিতে দ্বিতীয় স্থানটি এখন বিরাট কোহলির। তার আগের নামটি ব্যাটিং কিংবদন্তী সুনিল গাভাস্কারের। কোহলিকে জায়গা করে দিতে রেকর্ড বইয়ের তৃতীয় স্থানে নেমে গেছেন আরেক ব্যাটিং জিনিয়াস বীরেন্দ্র শেবাগ।
৭০ টেস্টের ১১৯ ইনিংসেই ছয় হাজার রানের মাইলফলক পার হয়েছেন কোহলি। শীর্ষে থাকা সুনিল গাভাস্কারের সমান রান করতে ৬৫ টেস্টের ১১৭ ইনিংস লেগেছিল। তৃতীয় স্থানে আছেন শেবাগ (৭২ টেস্ট, ১২৩ ইনিংস), চতুর্থ স্থানে আরেক নিজেন্ড রাহুল দ্রাবিড় (৭৩ টেস্ট, ১২৫ ইনিংস), চতুর্থ স্থানে আছেন শচীন (৭৬ টেস্ট, ১২০ ইনিংস)। শচীনের অবশ্য সবচেয়ে কম বয়সে (২৬ বছর) ছয় হাজার রানের রেকর্ড গড়ার রেকর্ডটি অক্ষুণ্ণ রয়েছে।
আগের টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৩ রানের ঝলমলে এক ইনিংস খেলার পর কোহলির রান ছিল ১১৮ ইনিংসে ৫৪.৪৯ গড়ে ৫ হাজার ৯৯৪। চতুর্থ টেস্টে ব্যাটিংয়ে নেমে সাউদাম্পটনের রোজ বুলে দারুণ এক কাভার ড্রাইভে রানের খাতা খোলেন কোহলি। ইনিংসের ২২তম ওভারে ইংলিশ পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের করা ওভারের ৫ম বলে বাউন্ডারি হাকিয়ে রেকর্ড বইয়ে আরও একবার নিজের নাম নিশ্চিত করেন এই ড্যাশিং ব্যাটসম্যান।
সবমিলিয়ে টেস্টে দ্রুততম ছয় হাজার রানের রেকর্ডের মালিক অজি ক্রিকেট কিংবদন্তী স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। মাত্র ৬৮ ইনিংসেই মাইলফলকে পৌঁছে যান তিনি। দ্বিতীয় স্থানে আছেন যৌথভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান স্যার গরফিল্ড সোবার্স ও সাময়িক নিষিদ্ধ সাবেক অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। ছয় হাজার রান করতে দু’জনেরই সমান ১১১ ইনিংস লেগেছিল।
কোহলি এখন নিজের আলাদা ইতিহাস গড়ায় ব্যস্ত। বিরুদ্ধ ইংলিশ কন্ডিশনেও প্রথম ও তৃতীয় টেস্টে গড়ে ২০০ রান করার পাশাপাশি দুই টেস্টেই সেঞ্চুরিও করেছেন তিনি। চলতি সিরিজে এখন পর্যন্ত প্রায় ৫০০ রান সংগ্রহ করেছেন কোহলি। সিরিজের এখনও চার ইনিংস ব্যাটিং করার সুযোগ আছে কোহলির সামনে। ফলে রাহুল দ্রাবিড়ের গড়া ইংল্যান্ডের মাটিতে এক টেস্ট সিরিজে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৬০২ রানের রেকর্ড ভাঙার দারুণ সুযোগ আছে তার সামনে।
কোহলির সামনে সুযোগ আছে আরও এক রেকর্ড গড়ার। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিন টেস্ট সেঞ্চুরির রেকর্ডে রাহুল দ্রাবিড়ের নামের পাশে জায়গা করে নেওয়ার কিংবা তাকে ছাড়িয়ে যাওয়ার। ২০০২ ও ২০১১ সালের এই দু’বার এই কীর্তি গড়েছিলেন ‘মিস্টার ডিপেন্ডেবল’।
ইংল্যান্ডের মাটিতে চার সেঞ্চুরির কীর্তিও আছে ইংলিশ ব্যাটসম্যান হার্ব সুটক্লিফ (১৯২৯), ডেনিস কম্পটন (১৯৪৭), অতুলনীয় ডন ব্র্যাডম্যানের (১৯৩০)। এই কীর্তিতেও ভাগ বসানোর সুযোগ থাকছে কোহলির সামনে।

SHARE