অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমে আটক : বাবা-মায়ের সাথে সন্তানদের আটক রাখবে যুক্তরাষ্ট্র

1

অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের সময় আটককৃতদের অভিবাসন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার আগ পর্যন্ত বাবা-মায়েদের সঙ্গে সন্তানদেরও আটক রাখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। আদালতের এই নির্দেশের জবাবে সরকার গত শুক্রবার জানায়, পরিবারের কাছ থেকে শিশুদের বিচ্ছিন্ন করা হবে না। কিন্তু অভিবাসন প্রক্রিয়া চলা পর্যন্ত একসঙ্গে আটক রাখবে। গত শুক্রবার ক্যালিফোর্নিয়ার জেলা আদালতে দায়ের করা এক নথিতে মার্কিন বিচার বিভাগের আইনজীবীরা একথা জানিয়েছেন। ফ্লোরস অ্যাগ্রিমেন্ট নামে পরিচিত ১৯৯৭ সালে আদালতের এক আদেশে অবৈধ অভিবাসীদের আটক সন্তানদের ২০ দিনের মাথায় মুক্তি দিতে অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগকে নির্দেশ দেওয়া হয়। তবে গত শুক্রবার আদালতে দায়ের করা নথিতে আইনজীবীরা বলছেন, অভিবাসন ইস্যু নিশ্চিত হওয়া পর্যন্ত বাবা-মায়েদের সঙ্গে আটক রাখা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। গত মঙ্গলবার আলাদা একটি মামলার রায় মানতে গিয়ে এ ছাড়া আর কোনও উপায় নেই বলে দাবি করেছেন আইনজীবীরা। মঙ্গলবারের আদেশ হওয়া ওই মামলা দায়ের করেছিল আমেরিকান সিভিল লিবার্টিস ইউনিয়ন। ওই মামলায় অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ট্রাম্প প্রশাসনের চলমান জিরো টলারেন্স নীতির আওতায় শিশুদের বিচ্ছিন্ন করে বাবা-মায়েদের প্রয়োজনীয় সময় ধরে আটক রাখার সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছিল। গত মে মাস থেকে নেওয়া ওই নীতির আওতায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা অভিবাসীদের কাছ থেকে তাদের সন্তানদের আলাদা করা হচ্ছিল। এর আওতায় প্রায় দুই হাজার পরিবার বিচ্ছিন্ন শিশুকে সরকারের হেফাজতে রাখা হয়েছে। বিতর্কের মুখে এই মাসে ট্রাম্প এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন। পরে আদালতের এক আদেশে শিশুদের বিচ্ছিন্ন বন্ধ করতে এবং ৩০ দিনের মধ্যে পরিবারের সঙ্গে রাখার নির্দেশ দেয়।