রাজশাহী সিটিতে পরাজয়ের ভয়ে প্রার্থী হতে চাননি মিজানুর রহমান মিনু

রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনুকে মেয়র প্রার্থী করতে চেয়েছিলেন বিএনপি নেতারা। দলের তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় পর্যায়েও মিনুকে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার জন্য প্রস্তাব দেয়া হয়। কিন্তু তিনি তাতে রাজে হননি। যদিও কারণ হিসেবে মিনু বলছেন, ‘বুলবুল ছোট ভাই, সে বর্তমানে মেয়র আছে। ৫ বছরের জন্য নির্বাচিত হলেও ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারেনি। এ অবস্থায় বুলবুলেরই মনোনয়ন পাওয়া উচিত।’ কিন্তু ঘটনা অন্য।

দলের বৃহৎ স্বার্থ বাদ দিয়ে বুলবুলের প্রতি মিনুর এমন দয়া-দাক্ষিণ্যসূলভ মনোভাবকে সহজভাবে দেখছে না দলের অনেক নেতাই। কেননা, নির্বাচনে জয়-পরাজয়ের প্রশ্নে বুলবুলের প্রতি অস্থা না থাকার দরুন মিনুকে প্রার্থী করতে চাওয়া হয়েছিলো।

জানা গেছে, সম্প্রতি তার বাসভবনে কথা প্রসঙ্গে স্থানীয় কয়েকজন নেতার সঙ্গে আলাপকালে মিনু বলেছেন, রাজশাহীতে এবার খুলনা তথা গাজীপুর সিটি নির্বাচনের মতো ফলাফল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই ঝুঁকি নিতে চাইনি।

সূত্র জানায়, রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের বিপক্ষে শক্ত প্রার্থী দেয়ার জন্য বিএনপিতে বেশ আগে থেকেই চেষ্টা চলছিল। এ ক্ষেত্রে বর্তমান মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের জনপ্রিয়তা যাচাই-বাছাইও করা হয়। প্রাপ্ত তথ্য বিবেচনা করে দলের হাই কমান্ড বুলবুলের চেয়ে মিনুকেই শক্ত প্রার্থী হিসেবে মনে করলেও নিজের অবস্থান সম্পর্কে টের পেয়ে মিনু প্রার্থী হতে অস্বীকৃতি জানায়।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩০ জুলাই একযোগে রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে।

SHARE