বল টেম্পারিং বিতর্কে সম্মান বাঁচানোর লড়াইয়ে শ্রীলঙ্কা

বিশ্বকাপ ফুটবলের এই ডামাডোলেও সেন্ট লুসিয়া টেস্টের বল টেম্পারিং ভালোই আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। বল বিকৃতিকে কেন্দ্র করে শ্রীলঙ্কা বনাম আইসিসির লড়াইয়ে চাপাই পড়ে গেছে শ্রীলঙ্কা-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটীয় লড়াই। মাঠে কিন্তু দুর্দান্ত জবাব দিচ্ছে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের দল। সেন্ট লুসিয়া টেস্টে ক্রিকেটীয় লড়াইয়ের চেয়ে বড় হয়ে উঠেছে শ্রীলঙ্কা বনাম আইসিসির লড়াই! লড়াইটা বড় অদ্ভুত। দুই পক্ষের সামনেই সত্য প্রমাণের চ্যালেঞ্জ। লঙ্কান অধিনায়কের গায়ে কলঙ্কের দাগ পড়বে কি না, সেটি প্রমাণ করতে হবে আইসিসিকে। আর শ্রীলঙ্কাকে প্রমাণ করতে হবে, চান্ডিমাল নিষ্কলুষ। কোনো অপরাধ করেননি। বিশ্বকাপ ফুটবলের এই ডামাডোলেও সেন্ট লুসিয়া টেস্টের বল টেম্পারিং ভালোই আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। বল টেম্পারিং নিয়ে অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটের টালমাটাল ছবিটা এখনো চোখের সামনে ভাসছে বলে। সেবার অস্ট্রেলিয়া বিতর্কের মুখে প্রথমেই সব স্বীকার করে নিয়েছে। কিন্তু শ্রীলঙ্কার দাবি, তারা কোনো অন্যায় যখন করেনি, শাস্তি কেন মাথা পেতে নেবে? এরইমধ্যে অবশ্য ৫ রানের জরিমানা গুনতে হয়েছে তাদের। এখন শাস্তির মুখে লঙ্কান টেস্ট অধিনায়ক। চান্ডিমালের বিরুদ্ধে আইসিসি অভিযোগ এনেছে আনুষ্ঠানিকভাবে। চান্ডিমালের সামনে পথ ছিল দোষ স্বীকার করে নেওয়া ম্যাচ রেফারির কাছে। তবে চান্ডিমাল জানিয়েছেন, তিনি সে পথে হাঁটবেন না; বরং তিনি চ্যালেঞ্জ করছেন, তিনি অন্যায় করেননি। শুক্রবার টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া ছিল শ্রীলঙ্কা। প্রথম ইনিংসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুটাও বেশ ভালো হয়েছিল। এই সময় শ্রীলঙ্কান ফিল্ডাররা যেভাবে বল দেওয়া-নেওয়া করেছে, সেটি নিয়ে সন্দেহ হয় দুই আম্পায়ার আলিম দার ও ইয়ান গোল্ডের। দুজন তৃতীয় আম্পায়ার রিচার্ড কেটেলবরোকে জানালে তিনি সম্প্রচার কর্তৃপক্ষের কাছে ভিডিও ফুটেজ দেখতে চান। তৃতীয় দিন সকালে আম্পায়াররা ফুটেজে দেখতে পান, চান্ডিমাল বাঁ পকেট থেকে ক্যান্ডি জাতীয় কিছু একটা নিয়ে মুখে দিচ্ছেন, তার পরপরই সেই লালা বলে লাগিয়ে দিচ্ছেন বোলারের হাতে। এই ফুটেজ দেখার পর আম্পায়াররা বল বিকৃতির অভিযোগ আনেন লঙ্কান অধিনায়কের বিপক্ষে। আইসিসি গতকাল এক বিবৃতিতে এ তথ্যই জানিয়েছে। বল বিকৃতির এই ঘটনার পর কী কী নাটক হয়েছে, সে তো জানাই হয়েছে। শ্রীলঙ্কাকে ৫ রান জরিমানা, খেলতে অস্বীকৃতি জানানো, ২ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে খেলা বন্ধ থাকাÑকত কিছু হয়ে গেছে তৃতীয় দিন সকালে। বিশ্বকাপ ফুটবলে বিশ্ব মিডিয়া ব্যস্ত। নয়তো এ নিয়ে হয়তো তোলপাড় আরও পড়ত।
আইসিসি জানিয়েছে, এই ঘটনার বিচার হবে সেন্ট লুসিয়া টেস্টের পর। শুনানির সময় আবারও দেখা হবে ভিডিও ফুটেজ। অভিযোগ প্রমাণিত হলে আইসিসির পক্ষ থেকে চান্ডিমালের শাস্তি যে খুব বড় হবে, তা নয়। ৫০ থেকে ১০০ শতাংশ ম্যাচ ফি জরিমানা, দুটি নিষেধাজ্ঞা পয়েন্ট বা তিন-চারটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেতে পারেন শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক। তবে শাস্তির চেয়ে এটা শ্রীলঙ্কার জন্য হবে বিরাট লজ্জার ঘটনা। যে লজ্জার অনুশোচনায় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) কয়েক মাস আগে বড় শাস্তি দিয়েছে স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে। অপরাধের মাত্রার চেয়ে ক্রিকেটীয় নৈতিকতাকে সমুন্নত রাখতে না পারাকেই বেশি বড় করে দেখেছিল সিএ। পুরো ক্রিকেট বিশ্ব কেঁপে গেছে সেই শাস্তিতে! তবে ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা (এসএলসি) এই পথে হাঁটছে না। এসএলসি আগেই জানিয়ে দিয়েছে, খেলোয়াড়দের রক্ষা করতে সব ধরনের পদক্ষেপই নেবে তারা। বল বিকৃতিকে কেন্দ্র করে শ্রীলঙ্কা বনাম আইসিসির এই লড়াইয়ে চাপাই পড়ে গেছে সেন্ট লুসিয়া টেস্ট। মাঠে কিন্তু দুর্দান্ত জবাব দিচ্ছে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের দল। চতুর্থ দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে তাদের রান ৮ উইকেটে ৩৩৪। লিড ২৮৭ রানের। শেষ দিনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচটা বাঁচাতে পারবে কি না, সেটিই দেখার। ক্যারিবীয়রা যদি শেষ পর্যন্ত না পারে, শ্রীলঙ্কানদের কণ্ঠ আরও জোরালো হবে।

SHARE