খেলার আগেই ছিটকে গেলেন বিরাট কোহলি

5

এবারই প্রথমবার সুযোগ ছিল ইংলিশ কাউন্টি ক্রিকেট আসরে খেলার। সারে কাউন্টির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধও হয়েছিলেন। কিন্তু খেলার আগেই কাউন্টি প্রতিযোগিতা থেকে ১ মাসের জন্য ছিটকে গেলেন বিরাট কোহলি। ঘাড়ের ইনজুরির কারণে এবার মাসব্যাপী খেলার যে সুযোগ ছিল কাউন্টিতে সেটি আর হচ্ছে না ভারতীয় অধিনায়কের। এখন সেই ইনজুরি কাটিয়ে দেশের হয়ে আগামী মাসের শেষদিকে ইংল্যান্ড সফরে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার জন্য ফিটনেস ফিরে পাওয়ার চেষ্টায় থাকবেন কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) থেকে জানানো হয়েছে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শেষে কোহলি অনুশীলনে ফিরতে পারবেন ১৫ জুন। জুনের মাঝামাঝি সময়েই আয়ারল্যান্ডে যাবে ভারতীয় দল। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ২ টি২০ খেলার পর, ৩ জুলাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টি২০ সিরিজ, ১২ জুলাই থেকে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ এবং ১ আগস্ট থেকে ৫ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে তারা। সর্বশেষবার ভারতীয় দল ইংল্যান্ড সফর করেছিল ২০১৪ সালে। কিন্তু সেই সিরিজে চিরাচরিত কোহলিকে দেখা যায়নি। চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছিলেন তিনি ব্যাট হাতে। ৫ টেস্টে মাত্র ১৩৪০ গড়ে করতে পেরেছিলেন ১৩৪ রান। সেই হতাশাজনক স্মৃতি এখনও মনে আছে কোহলির। এ জন্যই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) ভাবছিল এবার কোহলিকে কাউন্টিতে খেলার অনুমোদন দিলে ইউরোপের মাটিতেও নিজের খেলার উন্নতি ঘটবে তার। প্রথমবারের মতো বিসিসিআই সেই অনুমতি দেয়ার পর সারের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন কোহলি। তখন এ বিষয়ে কোহলি বলেছিলেন, ‘কাউন্টি ক্রিকেটে খেলতে পারলে আমার খেলার অনেক উন্নতি ঘটতে সহায়ক হবে। আমার মনে হয় এটি অনেক চ্যালেঞ্জিং একটা আসর, অনেক বেশি প্রতিদ্বন্দি¦তাপূর্ণ এবং কোন ধরনের নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারে না ভাল করার। অনেক আগে থেকে সেখানে গেলেও তা নিশ্চিত করা যায় না।’ কিন্তু ২৯ বছর বয়সী বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা এ ব্যাটসম্যানকে এখন ইনজুরি কাটিয়ে ওঠার জন্য পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর হয়ে খেলেছেন কোহলি। গত ১৭ মে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিপক্ষে ম্যাচে ফিল্ডিং করার সময় ইনজুরিতে পড়েন তিনি। বিসিসিআইয়ের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চৌধুরী বিষয়টি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘কোহলি সাহেবের সারে কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে জুন মাসে যে খেলার কথা ছিল সেখানে অংশগ্রহণ করা থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। এই সিদ্ধান্তটি নেয়া হয়েছে বিসিসিআইয়ের মেডিক্যাল টিমের পর্যালোচনার ভিত্তিতে। এ সময় কিছু স্ক্যান রিপোর্ট এবং বিশেষজ্ঞদের পর্যবেক্ষণের বিষয়গুলো ছিল। এখন টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ককে কিছু সময়ের জন্য বিসিসিআই মেডিক্যাল টিমের তত্ত¦াবধানে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে।’ অনুশীলনে হয়তো আগেভাগেই ফিরবেন কোহলি। কিন্তু ফিটনেস টেস্ট দেয়া শুরু করবেন ১৫ জুন ব্যাঙ্গালুরুতে। ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো লিখেছে গত বুধবার মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে গিয়েছিলেন কোহলি। সেখানে এক অর্থোপেডিক শৈল্যবিদের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন তিনি। সেই শৈল্যবিদ পরে তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানিয়েছেন স্পাইনাল নার্ভ কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সে কারণে এমনকি ইংল্যান্ড সফরে ভারতীয় দলের হয়ে সফরের শুরুর দিকে কয়েকটি ম্যাচও খেলা মিস হতে পারে তার। এমন শঙ্কাও আছে। বছরের শুরুর দিকেও দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে একটি ওয়ানডে খেলতে পারেননি কোহলি এই ঘাড়ের ব্যথার কারণেই।