শিবগঞ্জে বাল্যবিয়ের দায়ে কনে শাশুড়ি কারাগারে

6

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মোবারকপুরে বাল্যবিয়ের প্রায় ২ মাস পর কনে ও শাশুড়িকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, ২ ফেব্রুয়ারি মোবারকপুরের ঘোনটোলা এলাকার মোতুর্জার ছেলে নাহিদ আলীর (২০) সঙ্গে একই এলাকার আবদুস সালামের মেয়ে মারুফা খাতুনকে (১৬) বাল্যবিয়ে সম্পন্ন করে ঘর সংসার করে আসছিলেন। এমন সংবাদ পাবার পর গত শুক্রবার রাত সোয়া ১০টার দিকে মোতুর্জার বসতবাড়িতে অভিযান চালিয়ে কনে মারুফা খাতুন ও কনের শাশুড়ি তানজিলা বেগম (৪৫) কে আটক করে থানা পুলিশ। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মারুফা খাতুন বাল্যবিয়ে সম্পন্ন হওয়ার কথা স্বীকার করেন। ওইদিন রাতেই শিবগঞ্জ থানার এসআই শ্যামল কুমার সরদার বাদি হয়ে কনে ও শাশুড়িসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেন।
শিবগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুল ইসলাম হাবিব জানান, বাল্যবিয়ে নিরোধ আইনের ২০১৭ সালের এর ৭ (১), (২) ও ৮ ধারায় অপরাধের মামলা হয়েছে। তিনি জানান, যেখানে বাল্যবিয়ে সেখানেই পুলিশের সাঁড়াশি অভিযান চালাবে। এছাড়া বাল্যবিয়ের বিরুদ্ধে পুলিশ তৎপর রয়েছে সর্বদা।