নাচোল-আড্ডা সড়কে র‌্যাবের অভিযান তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল ও পাজেরো জীপসহ গ্রেফতার দুই

6

র‌্যাব-৫, রাজশাহী দীর্ঘদিন যাবৎ দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী, চোরাকারবারী ও মাদক পাচারকারী চক্রের সক্রিয় সদস্যদের হাতেনাতে গ্রেফতার করার লক্ষ্যে কঠোর গোয়েন্দা নজরদারী অব্যাহত রেখেছে। এছাড়াও অস্ত্রসহ অন্যান্য অপরাধ দমনে শুরু থেকেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন র‌্যাব সদস্যরা। বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মাদক ও অস্ত্র উদ্ধার করেন তারা।
তারই ধারাবাহিকতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প কমান্ডারের নেতৃত্বে গতকাল শুক্রবার নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার টগরইল মধ্যপাড়া পাঞ্জেগানা মসজিদের সামনে অভিযান চালিয়ে তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল, ফেন্সিডিল বহনকারী ১ টি মিৎসুবিসি পাজেরো জীপ, ২টি মোবাইল ফোন ও ৩ হাজর ৩৩০ টাকাসহ রাজশাহীর বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম দক্ষিণপাড়ার মো. শামসুজ্জামান রাজার ছেলে মো. রবিন (২৬) ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বাররশিয়া ইসলামপুর গ্রামের মৃত বিশুর ছেলে মো. তছলিম (৫০)কে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আব্দুল্লাহ আল মুরাদ জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্প গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল হয়ে কতিপয় মাদক স¤্রাট ও ব্যবসায়ী ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ ফেন্সিডিল বিক্রির উদ্দেশ্যে একটি মিৎসুবিসি পাজেরো জীপে বহন করে নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর থানার আড্ডার দিকে যাচ্ছে। এমন সংবাদ পেয়ে ফেন্সিডিল বোঝাই পাজেরো জীপসহ মাদক ব্যবসায়ীদেরকে হাতেনাতে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল কোম্পানী কমান্ডারের নেতৃত্বে নাচোল-আড্ডাগামী সড়কের তিন জায়গায় কৌশলে অবস্থান গ্রহণ করে। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই ঢাকা মেট্টো-ঘ ০২-১৫৮২ নম্বরপ্লেটযুক্ত একটি কালো রংয়ের মিৎসুবিসি পাজেরো জীপ আসতে দেখলে তাকে থামানোর সংকেত দেওয়া হয়। কিন্তু সে সংকেত অমান্য করে দ্রুতগতিতে জিপটি বেরিয়ে যায়। পরবর্তী সিগনালে রাস্তার মাঝে একটি ট্রাক দিয়ে বেরিকেড দিলে অপরাধীরা ট্রাকের পাশ ঘেঁষে ড্রেনের উপর দিয়ে গাড়ী নিয়ে পালানোর চেষ্টাকালে নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর থানাধীন টগরইল মধ্যপাড়া এলাকায় নাচোল-আড্ডাগামী সড়কের উপর তিন নম্বর বেরিকেডে রাখা তিনটি ট্রাক অতিক্রম করতে না পেরে সরাসরি ট্রাকে গিয়ে ধাক্তা দিয়ে থেমে যায। এসময় মো. রবিন ও মো. তছলিমকে ফেন্সিডিল বোঝাই পাজেরো জীপসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। পরবর্তীতে ফেন্সিডিল বোঝাই জীপ তল্লাশী করে জীপের ভিতর হতে তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়।
ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব আরও জানায়, গ্রেফতারকৃতরা মাদক ভ্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন যাবৎ ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন ধরনের মাদক দ্রব্য চোরাইপথে ও অবৈধভাবে সংগ্রহ করে জীপ, ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাচারের সাথে জড়িত। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা জানায়, তারা ফেন্সিডিলগুলো বিক্রির উদ্দেশ্যে ঢাকায় নিয়ে যেত। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।