হত্যার দায়ে স্ত্রী-সন্তানসহ ৬জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার হাউসনগরে হত্যার দায়ে স্ত্রী-সন্তানসহ ৬জনকে যাবজ্জীবন কারাদ-, প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা-অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান করেছেন আদালত।
বুধবার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান ঘোষণা করেন।
দ-প্রাপ্তরা হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার হাউসনগর গ্রামের মৃত ভোগুরুদ্দীনের ছেলে আব্দুর রহমানের স্ত্রী শাহারবানু (৪৪) ও ছেলে আব্দুল হাকিম (২৫), অপর ৪ আত্মীয়-সাজুরুদ্দীনের ছেলে রিয়াজুল ইসলাম (৫২), মতিউর রহমান (৪০), হাবিবুর রহমান (৩৫) ও এরফান আলীর স্ত্রী হাজেরা বেগম (৪০)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত পিপি আঞ্জুমান আরা মামলার বরাত দিয়ে জানান, আব্দুর রহমানের স্ত্রী শাহারবানু তার ভাই মতিউর রহমানকে ৭০ হাজার টাকা ধার দেয়। সে টাকা ফেরত দিতে অনিহা প্রকাশ করে মতিউর। এ নিয়ে আব্দুর রহমানের সাথে তাদের মনোমালিন্য হয়। এর জের ধরে ২০১২ সালের ২ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টায় আব্দুর রহমানের স্ত্রী, ছেলে ও অন্যান্য আত্মীয়-স্বজন মিলে আব্দুর রহমানকে স্বাসরোধ করে হত্যার পর দুই পা রশি দিয়ে বেঁধে দাইপুকুরিয়ায় একটি আম বাগানের আম গাছে ঝুলিয়ে রাখে। পরদিন স্থানীয়রা ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
ওই দিনই নিহত আব্দুর রহমানের ভাই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ৬ জনকে অভিযুক্ত করে শিবগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে, গত ২০১২ সালে ১৮ মে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক রুহুল আমিন। মামলায় ১৬জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত এরায় প্রদান করেন। সরকারি পক্ষে ছিলেন অতিরিক্ত পিপি আঞ্জুমান আরা এবং আসামী পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট তাহির জামিল।