টেস্টে বাংলাদেশের সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ের হাতছানি সিরিজ জয়ে চোখ বাংলাদেশের

শেষ দিনে দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুণ্যে শ্রীলংকার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্ট ড্র করে স্বাগতিক বাংলাদেশ। তবে আজ থেকে শুরু হওয়া ঢাকা টেস্ট জিতে সিরিজ জয়ের লক্ষ্য টাইগারদের। তিন বছর আগে দেশের মাটিতে সর্বশেষ টেস্ট সিরিজ জিতেছিলো বাংলাদেশ। এবার ঢাকা টেস্টে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ওই বন্ধ্যাত্ব ঘোচাতে মরিয়া মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল। সিরিজ জয়ে চোখ শ্রীলংকারও। এমন লক্ষ্য নিয়েই সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট খেলতে নামছে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। দু’দলের এ ম্যাচটি শুরু হবে সকাল সাড়ে ৯টায়। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টেস্টে মুখোমুখি হয়েছিলো বাংলাদেশ-শ্রীলংকা। বাংলাদেশের দশম টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে টস করতে নেমেই জয় পান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগটা ভালোভাবে কাজে লাগায় বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। তিন নম্বরে নেমে রানের ফুলঝুড়ি ফুটিয়েছেন মোমিনুল হক। তার সাথে পাল্লা দেয়া চেষ্টা করেছেন সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদুল্লাহ।
মোমিনুলের মত বড় ইনিংস খেলতে না পারলেও, গুরুত্বপূর্ণ দু’টি ইনিংস খেলেছেন মুশফিকুর ও মাহমুদুল্লাহ। মোমিনুল ১৭৬ রান করে আউট হয়েছিলেন। এ ছাড়া মুশফিক করেন ৯২ ও মাহমুদুল্লাহ ৮৩ রানে অপরাজিত থাকেন। প্রথম ইনিংসে ৫১৩ রানের বড় সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। এরপর নিজেদের ইনিংসে ব্যাট হাতে দক্ষতার সাথেই জবাব দিয়েছে শ্রীলংকা। কুশল মেন্ডিসের ১৯৬, ধনঞ্জয়া ডি সিলভার ১৭৩ ও রোশন সিলভার ১০৯ রানের সুবাদে ৯ উইকেটে ৭১৩ রান করে শ্রীলংকা। ফলে প্রথম ইনিংস থেকে ২শ রানের লিড পায় লংকানরা। এজন্য ২শ’ রানে পিছিয়ে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে খেলতে নেমে ৮১ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে চতুর্থ দিনের খেলা শেষ করে বাংলাদেশ। প্রথম অবস্থায় ইনিংস হারের শংকায় পড়ে টাইগাররা। কিন্তু ম্যাচের পঞ্চম ও শেষ দিন সেটি হতে দেননি মোমিনুল। উইকেটরক্ষক লিটন দাসকে নিয়ে শ্রীলংকার বোলারদের বিপক্ষে সেরা লড়াই করেছেন মোমিনুল। তাই সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যান তারা। মোমিুল সেঞ্চুরি পেলেও নাভার্স-নাইন্টিতে বিদায় নেন লিটন। মোমিনুল ১০৫ রান করলেও ৯৪ রানে থেমে যান লিটন। ফলে শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ড্র হয়। এই ইনিংসে ১শ’ ওভার ব্যাট করে বাংলাদেশ। ঢাকার মাঠে সর্বশেষ ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয় পেয়েছে টাইগাররা। শক্তিশালী এ দল দুটির বিপক্ষে পাওয়া জয়ও আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে বাংলাদেশকে। কঠিন পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম টেস্ট ড্র করতে পেরে আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ। তাই ঢাকা টেস্ট জয়ের স্বপ্ন দেখছে টাইগাররা। এমনটাই জানালেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ, ‘অবশ্যই আমাদের টেস্ট সিরিজ জয়ের সুযোগ রয়েছে। প্রথম ম্যাচে আমরা অনেকটা কঠিন পরিস্থিতি থেকে ড্র বের করে নিয়েছি। এখন আমাদের সামনে সিরিজ জয়ের দারুণ এক সুযোগ। ২০১৪ সালের পর টেস্ট সিরিজ জেতা হয়নি, এটা ভালো একটা সুযোগ। সব খেলোয়াড়রাই ইতিবাচক চিন্তা করছে। ইতিবাচক চিন্তাগুলোই মাঠে কাজে লাগাতে পারলে ফলটা ভালো আসবে।’
জয়ের সমান ড্র’তে খুশী বাংলাদেশ। তাই ঢাকা টেস্ট জয়ের কথা ভাবছে তারা। জয়ের কথা ভাবছে শ্রীলংকাও। তবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেট খেলার আভাস দিয়ে রাখলেন শ্রীলংকার অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমাল। দ্বিতীয় টেস্টের আগে চান্ডিমাল বলেন, ‘আমাদের প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলতে হবে। এটাই আমাদের আসল লক্ষ্য। ভালো ক্রিকেট খেললে ফলাফল আপনার পক্ষে আসবেই। তাই ঢাকা টেস্ট জয়ের লক্ষ্য আমাদেরও আছে।’
বাংলাদেশ দল : মাহমুুদুল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, ইমরুল কায়েস, মোমিনুল হক, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, তাইজুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, কামরুল ইসলাম রাব্বি, সাব্বির রহমান, আবদুর রাজ্জাক, নাইম হাসান ও তানবীর হায়দার।
শ্রীলংকা দল : দিনেশ চান্ডিমাল (অধিনায়ক), দিমুথ করুনারতেœ, দানুস্কা গুনাথিলাকা, কুশল মেন্ডিস, ধনানঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকবেলা, রোশন সিলভা, রঙ্গনা হেরাথ, সুরঙ্গা লাকমাল, দিলরুয়ান পেরেরা, দুশমন্ত চামিরা, লক্ষন সান্দাকান, আকিলা ধনঞ্জয়া, লাহিরু গামেগা ও লাহিরু কুমারা।