প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে শপথ নিলেন রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার

2

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে হারিয়ে রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত জাতীয় পার্টির মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা পাঁচ বছর দায়িত্ব পালনের শপথ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে। ভোটের এক মাসের মাথায় বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার কার্যালয়ে রংপুরের নতুন মেয়রকে শপথ পড়ান। একই অনুষ্ঠানে এই সিটির ৩৩ জন কাউন্সিল এবং ১১ জন সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলকে শপথ পড়ান স্থানীয় সরকার মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গাও উপস্থিত ছিলেন এ অনুষ্ঠানে। গত ২১ ডিসেম্বর দলীয় প্রতীকে এই নির্বাচনে লাঙ্গলের প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা ১ লাখ ৬০ হাজার ৪৮৯ ভোট পেয়ে মেয়র নির্বাচিত হন। আর আওয়ামী লীগের প্রার্থী সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু নৌকা প্রতীকে পান ৬২ হাজার ৪০০ ভোট। তৃতীয় স্থানে থাকা বিএনপির প্রার্থী কাওসার জামান বাবলা ধানের শীষ প্রতীকে ৩৫ হাজার ১৩৬ ভোট পান। শপথের পর প্রধানমন্ত্রী রংপুরের জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়ে মেয়র ও কাউন্সিলরদের উদ্দেশে বলেন, জনগণের সেবা করবেন এবং আন্তরিকতার সাথে কাজ করবেন। উন্নয়নের কাজটা যেন ভালোভাবে চলে। উত্তরবঙ্গে একসময় মঙ্গার কারণে মানুষকে ভুগতে হত, অভাবক্লিষ্ট মানুষের জন্য লঙ্গরখানা খুলতে হত, সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন আর মঙ্গা নেইৃ মঙ্গা আমরা দূর করতে পেরেছি। এখনও অনেক কাজ বাকি, কোনো মানুষ গরিব থাকবে না। কোনো মানুষ গৃহহীন থাকবে না। ২০০৯ সালে রংপুর সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ছিলেন মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। পাঁচ বছর আগে জাতীয় পার্টি থেকে বহিষ্কৃত হয়ে তৃণমূল জাপা গঠনের উদ্যোগ নিলেও এখন তিনি মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি।