নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে বললেন খালেদা জিয়া

0

আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রাম ও নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে দলীয় নেতাকর্মীদের আহবান জানিয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় রেখে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হবে না। সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। গত কাল রবিবার বিকেলে গুলস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা এ সমাবেশের আয়োজন করে। ক্ষমতাসীনদের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়া বলেন, সংবিধানের দোহাই দিয়ে তারাই সংবিধান লঙ্ঘন করছে। এসময় তিনি ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন প্রসঙ্গ টেনে এনে বলেন, ১৫৪ জন সংসদ সদস্য বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়ে সংবিধান লঙ্ঘন করেছে। খালেদা জিয়া জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। আওয়ামী লীগের শৃঙ্খল হতে মুক্ত হতে আরেকবার মুক্তিযোদ্ধাদের জেগে উঠতে আহবান জানান খালেদা জিয়া। এর আগে বিকেল ৪ টা ২৫ মিনিটে তিনি সমাবেশ স্থলে পৌঁছান। বিকেল ৩ টা ২৫ মিনিটে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সমাবেশ শরু হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা দলের সদ্য বিলুপ্ত কমিটির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ইশতিয়াক আজীজ উলফাৎ। দীর্ঘদিন ধরেই মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সমাবেশ করতে পারেনি বিএনপি। সর্বশেষ ২০১৪ সালে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে মুক্তিযোদ্ধাদের সমাবেশে বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া। লন্ডনে চিকিৎসা শেষে সম্প্রতি দেশে আসেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। এরপর থেকেই তিনি নিয়মিত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় হাজিরা দিচ্ছেন। এরই মধ্যে দীর্ঘ দেড় বছর পর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি পায় বিএনপি। জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে গত ১২ নভেম্বর সেই সমাবেশে বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া।