চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড

2

চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন আদালত। দন্ডিত ব্যক্তি হচ্ছেন জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের বেগপুর গ্রামের শের মোহাম্মদের ছেলে খাইরুল ইসলাম (৪৫)। একই মামলায় খাইরুল ইসলামের প্রথম স্ত্রী জুলেখাকে ৩ বছর সশ্রম কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান করেন আদালত। রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. জিয়াউর রহমান আসামিদের উপস্থিতিতে এই রায় প্রদান করেন।
মামলার বরাত দিয়ে সরকারি সহকারী কৌশুলি অ্যাডভোকেট আঞ্জুমান আরা জানান, ভালবেসে পালানী ওরফে কুলসুমকে (৩৮)কে ধর্মান্তরিত বিয়ে করে খাইরুল। ২০১৫ সালের ৮ জানুয়ারি আসামী খাইরুল ইসলাম ও তার প্রথম স্ত্রী জুলেখার সাথে খাইরুলের দ্বিতীয় স্ত্রী পালনী ওরফে কুলসুমের পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া হয়। ওইদিন রাত ১২টার দিকে কুলসুমের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে এবং শ্বাসরোধ করে হত্যার পর কুলসুমের লাশ পার্শ্ববর্তী আমবাগানে গলায় ওড়ানা পেঁচিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। পরদিন ভোর ৬টার দিকে স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ৯ জানুয়ারি খাইরুল ইসলাম ও তার প্রথাম স্ত্রী জুলেখার বিরুদ্ধে আইনুল হক আনু নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি গোমস্তাপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গোমস্তাপুর থানার এসআই এসএম সাইফুল আলম একই বছর ১৫ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ১১ জনের স্বাক্ষ্যগ্রহণ শষে আদালত এ রায় প্রধান করেন।