ওজন কমাতে সহায়তা করে পালংশাক

পালংশাক মাত্রাতিরিক্ত খাদ্যস্পৃহা এবং ক্ষুধাবোধ কমাতে সাহায্য করে। আর এর মধ্যদিয়ে ওজন কমাতে সহায়তা করে পালংশাক।
নতুন এক গবেষণায় পালংশাকের এ গুণের কথা উঠে এসেছে। পালংশাকে রয়েছে থাইলোকোয়েড নামের একটি উপাদান। মানব দেহে খাবার গ্রহণের পর যে পরিতৃপ্তির সৃষ্টি হয় তা দেখা দেয় বিশেষ হরমোনের কারণে। থাইলোকোয়েড এমন হরমোনের নিঃসরণ বাড়িয়ে দেয়।
এ ছাড়া, চর্বি হজমের প্রক্রিয়াকে বিলম্বিত করে। দুইয়ে মিলে খাদ্যস্পৃহা এবং ক্ষুধাবোধ উভয়ই কমে। এ সংক্রান্ত্ম গবেষণা নিবন্ধ জার্নাল অব দ্যা আমেরিকান কলেজ অব নিউট্রিশনে প্রকাশিত হয়েছে।
আমেরিকার লুজিয়ানা অঙ্গরাজ্যের পেনিনংটন বায়োমেডিকেল রিসার্চ সেন্টার এ গবেষণা চালিয়েছে। এ কাজে জড়িত অন্যতম গবেষক ফ্রাংক এল গ্রিনওয়ে বলেন, খাদ্যস্পৃহা এবং ক্ষুধাবোধ কমাতে সাহায্য করে থাইলোকোয়েড। তাই উচ্চরক্তচাপ এবং অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় যারা ভুগছেন তাদের ক্ষেত্রে সহায়তা করতে পারে থাইলোকোয়েড।
এখানে অবশ্য একটি বিষয় গুরম্নত্বপূর্ণ বিষয় উলেস্নখ্য করা প্রয়োজন আর তা হলো, চিকিৎসক যদি কোনো কারণে আপনাকে পালংশাক খেতে নিষেধ করে থাকেন তা হলে এটি পড়ে তা খেতে যাবেন না। আসলে গবেষণাসংক্রান্ত্ম এসব খবর কখনই চিকিৎসকের পরামর্শের চেয়ে গুরম্নত্বপূর্ণ হতে পারে না। তাই খাদ্য বা চিকিৎসা গবেষণাসংক্রান্ত্ম কোনো খবর পড়েই তা পালন করতে মেতে উঠবেন না। এ ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শ অবশ্যই গ্রহণ করবেন। না হলে মারাত্মক বিপদ দেখা দিতে পারে।