ঘুমাতে কষ্ট হচ্ছে মেসিদের : তিতে

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের শেষ রাউন্ডের আগে সবার আগে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করা ব্রাজিল যখন আছে ফুরফুরে মেজাজে তখন তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা আছে শঙ্কায়। একুয়েডরের বিপক্ষে বাঁচামরার ম্যাচের আগে লিওনেল মেসিদের ঘুমাতে সমস্যা হওয়ার কথা বলে মনে করেন ব্রাজিল কোচ তিতে।
এর আগে সর্বশেষ ১৯৭০ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে খেলতে পারেনি আর্জেন্টিনা। তারপর টানা ১১টি আসরে খেলেছে তারা। দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চল থেকে সেরা চার দল সরাসরি খেলবে আগামি বছরের বিশ্বকাপে। পঞ্চম দলটির সুযোগ পেতে হলে প্লে-অফ খেলে জিততে হবে ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের চ্যাম্পিয়ন নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে।
সবশেষ তিন ম্যাচে ড্র করে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে আর্জেন্টিনা। পেরুর পয়েন্টও ২৫; দুই দলের গোল ব্যবধানও সমান। তবে কম গোল করায় পিছিয়ে আছে সাম্পাওলির দল।
শীর্ষস্থানধারী ব্রাজিলের পয়েন্ট ৩৮। দ্বিতীয় স্থানে থাকা উরুগুয়ের পয়েন্ট ২৮। ২৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে চিলি। কলম্বিয়ার পয়েন্টও ২৬, তাদের গোল পার্থক্যও সমান, তবে কম গোল করায় পিছিয়ে কলম্বিয়া।
বাছাইপর্ব পেরিয়ে সবার আগে রাশিয়া বিশ্বকাপে ওঠা ব্রাজিল শেষ রাউন্ডে ঘরের মাঠে খেলবে চিলির বিপক্ষে। এই ম্যাচের ফলের উপরও কিছুটা আর্জেন্টিনার ভাগ্য নির্ভর করছে। একই সময়ে হতে যাওয়া এ ম্যাচে চিলি জিততে না পারলে আর্জেন্টিনা নিজেদের ম্যাচে জিতলে শীর্ষ চারে থেকে সরাসরি বিশ্বকাপ খেলার টিকেট পাবে।
ফুটবল বিশ্বে আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল একে অপরের চিরশত্রু। তাই এই সুযোগে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা ইচ্ছে করে প্রতিবেশী দেশটির ক্ষতি করবে কি-না, এমন গুঞ্জনও উঠেছে। তবে তিতে জোর দিয়ে বলেছেন, এমন কিছু হবে না।
“আমি চাই প্রতিযোগিতাটা ন্যায্য হোক। এটাই আমাদের ভালো খেলাবে। আর্জেন্টিনায় আমার বন্ধু আছে। কলম্বিয়ায় হোসে পেকেরমানকে আমি খুব পছন্দ করি। চিলির শক্তি সম্পর্কে আমি জানি।”
আর্জেন্টিনার মতো পরিস্থিতিতে পড়তে না হওয়ায় ভীষণ খুশি তিতে।
“বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব এক ম্যাচের বিষয় নয়, এটা পুরো প্রতিযোগিতার ব্যাপার। গতকাল আমরা একে অপরকে ধন্যবাদ দিয়েছি কারণ এরইমধ্যে আমরা বিশ্বকাপে চলে গেছি।”
“অন্যদের জন্য এখন কি অবস্থা, আমি কল্পনা করতে পারছি না। নিশ্চয় তাদের ঘুমাতে কষ্ট হচ্ছে। আমাদের জন্য যেটা সবচেয়ে ভালো হবে সেটাই আমরা করতে যাচ্ছি।”
পয়েন্ট টেবিলে পিছিয়ে পড়লেও বিশ্বকাপ ভাগ্য নিজেদের হাতেই আছে আর্জেন্টিনার। শেষ রাউন্ডে তাদের উপরে থাকা দুই দল পেরু ও কলম্বিয়া বুধবার একই সময়ে মুখোমুখি হবে। এই ম্যাচ ড্র হলে আর্জেন্টিনা একুয়েডরকে হারাতে পারলে সরাসরিই পাবে রাশিয়ার টিকেট।
আর আর্জেন্টিনার জয়ে পেরু ও কলম্বিয়ার মধ্যে যারা হারবে তারা চলে যাবে আর্জেন্টিনার নিচে। ফলে অন্য সব ম্যাচে যে ফলই হোক না কেন আর্জেন্টিনা জিততে পারলে অন্তত পঞ্চম স্থানে থেকে পাবে প্লে-অফ খেলার সুযোগ।

SHARE