কাশ্মিরের শ্রীনগরে বিএসএফ ক্যাম্পে হামলা : সৈন্যসহ নিহত ৪

ভারতের জম্মু ও কাশ্মির রাজ্যের রাজধানী শ্রীনগরের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) একটি ক্যাম্পে ব্যাপক অস্ত্রসজ্জিত আত্মঘাতী হামলাকারীরা হামলা চালিয়েছে। মঙ্গলবার ভোররাতে চালানো এ হামলায় এক ভারতীয় সৈন্য নিহত এবং সৈন্যদের পাল্টা গুলিতে তিন হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। পাহাড়ের ওপর ছড়িয়ে থাকা বিএসএফের ওই ক্যাম্পটিতে আরো কয়েকজন হামলাকারী লুকিয়ে থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে গোলাগুলি চালিয়ে যাচ্ছে। বিএসএফের ক্যাম্পটির দেয়ালের অপর পাশেই ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি স্টেশন আছে। পাকিস্তানি-ভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী জইশ ই মোহাম্মদের ‘আফজাল গুরু স্কোয়াড’ হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে এনডিটিভি জানিয়েছে। স্থানীয় সময় ভোররাত ৩টা ৪৫ মিনিটের দিকে সামরিক পরিচ্ছদে সজ্জিত চার কি পাঁচজন হামলাকারীর একটি দল চার স্তরের নিরাপত্তা বেস্টনি পার হয়ে বিএসএফের ১৮২ ব্যাটেলিয়নের ক্যাম্পটিতে ঢুকে পড়ে। তারা নির্বিচার গুলিবর্ষণের পাশাপাশি গ্রেনেড নিক্ষেপ করে। সৈন্যরা, কুইক অ্যাকশন টিম ও স্পেশাল অপারেশন্স গ্রুপের সদস্যরা হামলাকারীদের কোণঠাসা করার চেষ্টাকালে কয়েক ঘন্টা ধরে গোলাগুলি ও বিস্ফোরণে শব্দ শোনা যায়। স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তা মুনির খান বলেছেন, সন্ত্রাসীদের অবস্থান সুনির্দিষ্টভাবে জানি আমরা, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আহত তিন সৈন্যকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভারতীয় বিমান বাহিনীর কৌশলগত একটি স্টেশন এবং শ্রীনগর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের লাগোয়া ওই ক্যাম্পের ওপর দিয়ে হেলিকপ্টার চক্কর দিচ্ছে এবং হামলাকারীদের ধরতে জোর প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। বিমানবন্দরে যাওয়ার সব পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী নিরাপত্তা ক্লিয়ারেন্স না পাওয়া পর্যন্ত সকালের সব ফ্লাইট স্থগিত রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আরেক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা। বিমানবন্দরটির বাইরের নিরাপত্তা বেস্টনির একটি পাশ পাহারা দিত বিএসএফের রক্ষীরা। বেসামরিক বিমানবন্দরটির পাশেই আরেকটি সামরিক বিমানবন্দর আছে। সশস্ত্র বাহিনী ও ভিআইপিরা ওই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করে থাকেন। এই এলাকাটিতে বিএসএফ ও ভারতের সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) প্রশিক্ষণ কেন্দ্রও আছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। হামলাকারীরা বহু স্তরের নিরাপত্তা বেস্টনি ভেদ করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়ায় প্রতিবেদনের বরাতে বিবিসি জানিয়েছে, পুলিশ ঘটনাটিকে একটি আত্মঘাতী হামলা বলে অভিহিত করেছে এবং একটি লাশ পাওয়ার কথা জানিয়েছে। লাশটি হামলাকারীদের একজনের বলে সন্দেহ করছেন তারা। এর আগে গত বছরের সেপ্টেম্বরে কাশ্মিরের উরিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীর একটি ঘাঁটিতে সন্ত্রাসীদের হামলায় ১৯ সৈন্য নিহত হয়েছিল। ওই ঘটনার পর কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণ রেখার অপর পাশে পাকিস্তান-নিয়ন্ত্রিত অংশে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটিগুলোতে ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ চালিয়েছিল বলে দাবি করে আসছে ভারতীয় সেনাবাহিনী।