ডাবল সেঞ্চুরি এনামুলের

51

৫ বছর আগে হতাশ হয়েছিলেন ডাবল সেঞ্চুরির খুব কাছে গিয়ে। এবার সে রকম কোনো তিক্ত স্বাদ পেতে হলো না। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের প্রথম দ্বিশতক করেছেন এনামুল হক।
খুলনায় জাতীয় লিগের প্রথম স্তরের ম্যাচে সোমবার রংপুরের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন খুলনার এই ওপেনার। ১৭২ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করে আউট হয়েছেন ২১৬ রানে। নতুন ঘরোয়া মৌসুমের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি এটিই।
২০১২ সালে ফতুল্লায় ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে ১৯৩ ছিল তার আগের সর্বোচ্চ। সেবার ডাবল সেঞ্চুরি থেকে ৭ রান দূরে এলবিডব্লিউ হয়েছিলেন পেসার তারেক আজিজের বলে।
এনামুল ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন দ্বিতীয় দিন দ্বিতীয় সেশনে। সেদিন ৫৯ বলে স্পর্শ করেন হাফ সেঞ্চুরি। তিন অঙ্ক ছুঁয়েছিলেন ১৫৮ বলে। দিন শেষ করেন ১০৫ রানে।
এরপর বৃষ্টি বিঘিœত তৃতীয় দিনে খেলা হয় মাত্র ৩৯ ওভার। এদিনও টিকে যান এনামুল। দিন শেষ করেন ১৭২ রান নিয়ে।
চতুর্থ দিন সকালে পৌঁছে গেলেন কাক্সিক্ষত ঠিকানায়। ৩৩০ বলে ছুঁয়ে ফেলেন ডাবল সেঞ্চুরি।
শেষ পর্যন্ত ২১৬ রানে এলবিডব্লিউ হয়েছেন নাসির হোসেনের বলে। সাড়ে ৮ ঘণ্টায় খেলা ৩৫৬ বলের ইনিংসে চার ছিল ১৮টি, ছক্কা দুটি।
এই ডাবল সেঞ্চুরির কদিন আগে এনামুল আলোচিত হয়েছিলেন বোর্ড সভাপতির কথায়। বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান সংবাদমাধ্যমকে বলেছিলেন, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের জন্য নির্বাচকদের কাছে এনামুলের নাম সুপারিশ করেছেন তিনি।
এনামুল শেষ পর্যন্ত দলে জায়গা পাননি। গত কয়েক মৌসুমে বড় দৈর্ঘ্যরে ম্যাচে খুব যে অসাধারণ ছিল তার পারফরম্যান্স, তা নয়। তবে নতুন মৌসুমে শুরুটা হলো দুর্দান্ত। ধরে রাখতে পারলে হয়ত মিলবে জাতীয় দলে ফেরার টিকেট।