রাজশাহীতে আওয়ামী লীগ নেতাকে অপহরণের মামলা

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় স্থানীয় এক আওয়ামী লীগ নেতাকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। আবুল কালাম আজাদ নামের ওই ব্যক্তি পুঠিয়ার বানেশ্বর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বানেশ্বর বণিক সমিতির সভাপতি। বৃহস্পতিবার আবুল কালাম আজাদের ছেলে আবু সাঈদ দোয়েল বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন বলে জানিয়েছেন পুঠিয়া থানার ওসি সায়েদুর রহমান। মামলার বাদী বলেন, গত বুধবার সন্ধ্যার পর তার বাবা বণিক সমিতির অফিসে বসেছিলেন। এ সময় একটি মাইক্রোবাসে আসা সাদা পোশাকের কয়েকজন অপরিচত লোক বণিক সমিতির অফিসে যায়। তারা নিজদের ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে বাবাকে অফিস থেকে বাইরে ডেকে নিয়ে যায়। পরে তাকে সাদা রঙের ওই মাইক্রোবাসে তুলে নাটোরের দিকে চলে যায়। আবু সাঈদ বলেন, রাতেই পুঠিয়া থানাসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সকল সংস্থায় খোঁজ নেওয়া হয়েছে; কিন্তু কোথাও খোঁজ পাওয়া যায়নি। পুঠিয়া থানার ওসি সায়েদুর রহমান বলেন, রাতেই পরিবারের পক্ষ থেকে মৌখিকভাবে বিষয়টি তাকে জানানো হয়েছে। এরপরই পুলিশ তদন্ত শুরু করে। আইনশৃংখলা বাহিনীর সব সংস্থার সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। কোনো সংস্থা তাকে নিয়ে যায়নি। ওসি বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে আবুল কালাম আজাদের ছোট ছেলে বাদী হয়ে থানায় একটি অপহরণের মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে। তবে সন্দেহভাজন কয়েকজনের নাম জানিয়েছেন তারা। সেই সূত্র ধরে পুলিশ আবুল কালামকে উদ্ধারে কাজ করছে বলে জানান ওসি সায়েদুর রহমান।