লঙ্কান দলের বাস আটকে ভক্তদের বিক্ষোভ

রোববার ডাম্বুলায় ভারতের কাছে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ ৯ উইকেটে হারে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। লঙ্কানদের এমন হারে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে দেশটির ক্রিকেট ভক্তরা। সিরিজের প্রথম ওয়ানডে শেষে স্টেডিয়াম ছাড়ার সময় শ্রীলঙ্কার টিম বাসের সামনে দাঁড়িয়ে তা আটকে রাখেন প্রায় ৫০ জনের একটি গ্রুপ। প্রতিবাদ করার সময় স্লোগানের মাধ্যমে নিজেদের ক্ষোভও প্রকাশ করেন শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট ভক্তরা। দলের খেলোয়াড়দের পারফরমেন্সে অসন্তুষ্ট তারা। প্রায় ২০-২৫ মিনিট পর আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী প্রতিবাদমুখী গ্রুপটিকে সেখান থেকে সরিয়ে নেন। এ সময় স্টেডিয়াম পাড়া ছাড়তে প্রায় ৩০ মিনিট সময় লেগে যায় শ্রীলঙ্কা টিম বাসের। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট ভক্তদের এমন ক্ষোভ গেল কয়েক মাস ধরেই। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ব্যর্থতার পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ হেরে বসে তারা। এরপর ভারতের কাছে টেস্ট সিরিজে নাকানি-চুবানি খায় লঙ্কানরা। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দল, নির্বাচক ও বোর্ডের কর্মকর্তাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে আসছিলো ভক্তরা। এবার টিম বাসের সামনে সেই ক্ষোভ সামনা-সামনি প্রকাশ করলো ভক্তরা। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে ভক্তদের সমর্থন চেয়ে ওয়ানডে অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা বলেছিলেন, ‘দলের নৈতিক হাল ঠিক রাখতে ভক্তদের সমর্থন অনেক বড় ভূমিকা রাখে। কারণ দেশের জন্যেই আমরা খেলি। আর আমাদের লক্ষ্য থাকে দেশের ২০ মিলিয়ন পরিবারের জন্য গর্বিত হওয়ার মতো কিছু করা। তাই আপনাদের সমর্থন আমাদের জন্যে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’
ভক্তদের এমন আচরণ জানতে পেরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের অভিমত ব্যক্ত করেছেন শ্রীলংকার সাবেক অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা। তিনি বলেন, ‘আমরা জিতেছি, আপনি আমাদের সাথে উদযাপন করেছেন এবং যখন আমরা হেরেছি, তখন দুঃখ প্রকাশ করেছেন। যখন দল অনেক বেশি সংগ্রাম করছে, আমাদের শক্তি বাড়াতে তোমাদের ভালোবাসা ও সার্পোট প্রয়োজন। এখন আমাদের ক্রিকেটারদের যা প্রয়োজন তা হল- ভালোবাসা, সমর্থন, ধৈর্য এবং প্রচেষ্টা। আসুন আমরা দলের জয়ের প্রত্যাশা করি এবং তাদের সমর্থন করি।’