মাকড়সার সঙ্গে যার বসবাস

পোকামাকড়ে ভয় পান না এমন মহিলা বাস্তবিকই কোটিতে গুটি। তা ঘরের অন্ধকার কোণে ঘাপটি মেরে থাকা নিরীহ আরশোলাই হোক কিংবা চার দেওয়ালে বাওয়া টিকটিকি। রইল বাকি যে ঘরোয়া মাকড়সা, তাতেও আঁতকানির তিড়বিড়ানি। না বিদায়ে, স্বস্তি নেই। সেখানে এই মহিলার ঘরে দেড় হাজার মাকড়সানা, এরা কেউ-ই তার ঘরে অনাহুত অতিথি নয়। বরং, তিনিই নিজে উদ্যোগী হয়ে সংগ্রহ করে এনেছেন। খেয়ালের বশে একে একে বাড়তে বাড়তে, নানা জাতে প্রজাতিতে সবে মিলে দেড় হাজার। তিনি ইন্দোনেশিয়া নিবাসী মিং কু। মিং কু জানান, ২০১০ সাল থেকে তিনি মাকড়সা সংগ্রহ করছেন। মানে, আসলে কিনে আসছেন। এ পর্যন্ত খরচ করেছেন ৫৫ হাজার মিলিয়ন ডলার। মাকড়সা নিয়ে ঘর করছেন, অথচ কামড় খাবেন না, তা তো হতে পারে না। খেয়েছেন, বার কয়েকবার। তারপরেও শুরুর দিনের মতোই আজও ভালোবাসেন। কাউকে ভালোবেসে এটুকু যন্ত্রণা তো সইতে হয়ই, ঠোঁটের কোণে মুচকি হাসি দিয়ে বললেন এই মাকড়সাপ্রেমী।