অ্যারোমোবিলর উডুক্কু গাড়ি উন্মোচন

119

উডুক্কু গাড়ির একট বাণিজ্যিক নকশা উন্মোচন করেছে স্লোভাকিয়াভিত্তিক এক প্রতিষ্ঠান। এই গাড়ির দাম পড়বে ১০ লাখ ডলারের উপরে। বৃহস্পতিবার উন্মোচন করা গাড়িটি এখনই প্রি-অর্ডার এর জন্য প্রস্তুত আর ২০২০ সালে এর সরবরাহ শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। মোনাকোতে অনুষ্ঠিত বিলাসবহুল পণ্য প্রদর্শনী অনুষ্ঠান টপ মারকেস মোনাকো-এর এবারের আসরে ‘অ্যারোমোবিল ফ্লাইং কার’ নামে জলবিন্দু আকারের এই গাড়ি উন্মোচন করে অ্যারোমোবিল। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, এই গাড়ি তিন মিনিটের কম সময়ে ফ্লাইট মোডে চলে যেতে পারে। রাস্তায় চলার সময় পাখাগুলো ভাঁজ হয়ে যায় আর ওড়ার সময় এগুলো আবার বের হয়। প্রথম বাণিজ্যিক সংস্করণটির দাম হবে ১২ লাখ থেকে ১৫ লাখ ইউরো আর শুরুতে পাঁচশ ইউনিট পর্যন্ত বের করা হবে- এমনটাই লক্ষ্য নির্মাতাদের। ওড়ার জন্য গাড়িটির উপরে উঠতে একটি উড্ডয়ন ক্ষেত্র দরকার হবে আর মালিকদের কাছে ড্রাইভিং লাইসেন্সের সঙ্গে পাইলট লাইসেন্সও লাগবে, জানান অ্যারোমোবিল-এর প্রধান যোগাযোগ কর্মকর্তা স্টিফেন ভ্যাডকজ। আকাশে ওড়া আর রাস্তায় চলার নীতিমালা মেনে ২০২০ সালে গাড়িটি গ্রাহকদের হাতে পৌঁছানোর আশা প্রকাশ করেন তিনি।
ইতোমধ্যে বিভিন্ন দেশের সরকার কীভাবে ড্রোন আর চালকবিহীন গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা যায় তা নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে, বলা হয়েছে রয়টার্স-এর প্রতিবেদনে। অন্যদিকে, অটোমোবাইল আর এভিয়েশন খাতের প্রতিষ্ঠানগুলো নিরাপত্তা বজায় রেখে ও সব নীতিমালা মেনে সফটওয়্যারগুলো আরও উন্নত করতে কাজ করছে। চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে উডুক্কু গাড়ির গবেষণায় সহায়তা করতে সাবেক নাসা প্রকৌশলীকে নিয়োগ দিয়েছে অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সি সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান উবার। ‘উবার এলিভেট’ বিভাগের এভিয়েশন প্রকৌশল পরিচালক হিসেবে যোগ দেন মার্ক মুরে নামের ওই প্রকৌশলী।