আগামী নির্বাচনে হারের অজুহাত হিসেবে এখন ইসি নিয়ে বিতর্কে বিএনপি : ওবায়দুল

2015-05-23_bss-50_209928বিএনপি পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনে হারের অজুহাত হিসেবে এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে বিতর্ক তুলছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।  শনিবার চট্টগ্রামের পটিয়ার ইন্দ্রপুলে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের বাইপাস সড়কের কাজ উদ্বোধন করতে গিয়ে এক সমাবেশে তিনি এই মন্তব্যল করেন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, বিএনপি জানে আগামি নির্বাচনে জনগণের ভোটে তারা জিততে পারবে না। নারায়ণগঞ্জের মতো জাতীয় নির্বাচনেও তাদের ভরাডুবি হবে। সিইসিকে বিতর্কিত করে আগামি নির্বাচনে হেরে যাওয়ার কারণ খুঁজছে বিএনপি। পরাজয়ের পর বলবে- আমরা বলেছিলাম সিইসি বিতর্কিত। ওবায়দুল কাদের বলেন, নতুন নির্বাচন কমিশনে বিএনপি আমলের মতো দলীয় কেউ নিয়োগ পায়নি। “বিএনপি সার্চ কমিটিতে ১০ জনের নাম দিয়েছে। পরে আওয়ামী লীগের একজন, বিএনপির একজন আর অন্যান্য দলগুলোর নামের মধ্যে থেকে তিনজনকে নিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়েছে। সেই কমিশন নিয়ে আওয়ামী লীগ কোনো আপত্তি না করলেও বিএনপি এখন সিইসিকে পছন্দ করতে চাইছে না। রাষ্ট্রপতি যাই হোক আজিজ মার্কা কোনো ইলেকশন কমিশন গঠন করেননি। ‘দিশেহারা’ বিএনপিকে নিয়ে চিন্তা না করতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের পরামর্শ দেন কাদের। বিএনপিকে নিয়ে ভাবনা-চিন্তার প্রয়োজন নেই। বিএনপি পথ হারিয়ে দিশেহারা পথিক। তাদের ৫৯৬ জনের কেন্দ্রীয় কমিটি। এ কমিটি দিয়ে রাজপথে মিছিল করারও দৃঢ়তা- সাহস তাদের নেই।