আকস্মিক পদত্যাগের ঘোষণা নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর

66

02নিউ জিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি আকস্মিক পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। বিবিসি বলছে, আট বছর দায়িত্ব পালন শেষে অপ্রত্যাশিতভাবে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলেন তিনি। বিষয়টিকে নিজের জীবনে নেওয়া সবচে কঠিন সিদ্ধান্ত উল্লেখ করে কি আবেগায়িত হয়ে বলেন, “আমি জানি না এরপর আমি কি করব। ক্ষমতাসীন ন্যাশনাল পার্টি নয়া প্রধানমন্ত্রী হিসেবে কাউকে বেছে নেওয়ার আগ পর্যন্ত উপ-প্রধানমন্ত্রী বিল ইংলিশ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিউ জিল্যান্ড হেরাল্ড এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কি একজন জনপ্রিয় নেতা। স্ত্রী ব্রোনার অনুরোধে তিনি ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ন্যাশনাল পার্টির হয়ে তৃতীয়বারের মতো জয়ী কি বলেন, ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন না। সাপ্তাহিক সাংবাদিক সম্মেলনে কি এই ঘোষণা দেন। পারিবারিক কারণে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। আগামী ১২ ডিসেম্বর তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করার দিন নির্ধারণ করেছেন। ২০০৮ সালে লেবার পার্টির ৯ বছরের শাসনের অবসান ঘটিয়ে প্রধানমন্ত্রী হেলেন ক্লার্ককে সরিয়ে প্রধানমন্ত্রী হন জন কি। ২০০৮ সালের বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সংকট জন কির নেতৃত্বে নিউ জিল্যান্ড ভালোভাবেই সামাল দিতে সক্ষম হয়। তার সময়ে দেশটির উল্লেখযোগ্য অর্থনৈতিক অগ্রগতিও হয়েছে।