খালেদা জিয়ার বক্তব্যকে অন্তঃসারশূন্য বললেন ওবায়দুল কাদের

iনতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে প্রস্তাব দিয়েছেন তাকে ‘অন্তঃসারশূন্য’ বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। শুক্রবার বিকালে খালেদা জিয়ার ওই প্রস্তাবের পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আজ বেগম জিয়া কর্তৃক তথাকথিত নির্বাচন কমিশন সংস্কারের ফর্মূলা অন্তঃসারশুন্য এবং জাতির সাথে তামাশা ছাড়া আর কিছু নয়। বিএনপি নেত্রী এই বক্তব্যের মধ্য দিয়ে ‘বাংলাদেশের জনগণ বা প্রজতন্ত্রের কর্মকর্তা কর্মচারীদের উপর, পুলিশ-র‌্যাব-বিজিবির উপর আস্থাহীনতার প্রকাশ ঘটিয়েছেন’ বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের। গতকাল শুক্রবার বিকেলে হোটেল ওয়েস্টিনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দেয়া খালেদা জিয়ার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। খালেদার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে তাৎক্ষণিকভাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে দলের পক্ষে বক্তব্য রাখেন সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়া দীর্ঘ ৪৫ মিনিট ধরে যে বক্তব্য দিয়েছেন, তাতে নতুন কিছু নেই। তার বক্তব্য অন্তঃসারশ্ন্যূ। এ বক্তব্য দিয়ে খালেদা জিয়া প্রমাণ করেছেন জনগণের প্রতি তিনি আস্থাশীল নন।নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন রাষ্ট্রপতি। সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নির্বাচন কমিশন গঠনে যা করার তাই করবেন। ২০১৯ সালে একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ‘সব দলের’ মতৈক্যের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনের প্রস্তাব করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা। তিনি বলেছেন, এই কমিশন হতে হবে ‘সব নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল, অথবা স্বাধীনতার পর প্রথম জাতীয় সংসদ থেকে শুরু করে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করেছে এমন সকল রাজনৈতিক দলের’ মতৈক্েযর ভিত্তিতে। নির্বাচন কমিশন নিয়োগে একটি বাছাই কমিটি গঠনের একটি রূপরেখা দিয়েছেন বিএনপি নেত্রী। তার প্রস্তাব, ইসি নিয়োগ প্রক্রিয়া ও পদ্ধতি ঠিক করতে রাষ্ট্রপতি ‘প্রধান দুই রাজনৈতিক জোট’বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট এবং আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোটের প্রতিনিধিসহ সব দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ আলোচনায় নাগরিক সমাজের মধ্য থেকে ‘সৎ, যোগ্য ও দল নিরপেক্ষ প্রতিনিধিদের’ও যুক্ত করা যেতে পারে বলে অভিমত তার। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠকে সব দল পাঁচ সদস্যের বাছাই কমিটি গঠনের জন্য প্রতি পদের বিপরীতে দুই জনের নাম প্রস্তাব করবে। সেখান থেকে সব দলের মতৈক্েযর ভিত্তিতে রাষ্ট্রপতি পাঁচ সদস্যের বাছাই কমিটি গঠন করবেন। খালেদা জিয়ার এই প্রস্তাবকে ‘হাস্যকর’ বলেছেন ওবায়দুল কাদের। আওয়ামী লীগের সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন দলের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন প্রমুখ।

SHARE