চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকায় ডায়রিয়া প্রকোপ : ১২ ঘন্টায় ৪৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি

DSC07391 (Small)

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার মসজিদপাড়া, কালীতলা গলি, চাঁদলাই, পিটিআই বস্তি, আলী নগর এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে ১৫ নং ওয়ার্ডের মসজিদপাড়ার অবস্থা ভয়াবহ। মঙ্গলবার রাত ১২ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত যায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৪৬জন। পৌরসভার স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জহির উদ্দিন জানান, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মসজিদ পাড়ারই নারী পূরুষ ভর্তি হয়েছে ৩০ জন। সবমিলিয়ে গত ২দিনে ভর্তি হয়েছে শতাধিক রোগী। পানি দূষণের কারণে ডায়রিয়ার পাদুর্ভাব বলে ধারণা করছে স্বাস্থ্য বিভাগ। সরবরাহ না থাকায় কলেরা স্যালাইন দিতে পারছেনা হাসপাতল কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় সদর হাসপাতালে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, বেডে স্থান সংকুলান না হওয়ায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীরা মেঝেতে শুয়ে আছেন। তারা জানান, কলেরা স্যালাইন না পেয়ে অনেকেইে অন্যত্র চলে গেছেন।
কর্তব্যরত সিনিয়র স্টাফ নার্স নুরুন নাহার জানান, মঙ্গলবার রাত ১২ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত হাসপাতালে ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছে ৪৬ জন। সোমবর ভর্তি হয় ৫৯ জন। এতের মধ্যে ৩৪ জনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।
কলেরা স্যালাইন না থাকার কথা জানতে চাইলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. প্রধান আবুল কালাম আজাদ জানান, উৎপাদন সমস্যার কারণে কলেরা স্যালাইন সরবরাহ ছিল না। ফলে রোগীরেদকে তা দেওয়া যাচ্ছে না। তবে স্বাস্থ্য বিভাগের রাজশাহী বিভাগীয় পরিচালকের সাথে ডায়রিয়ার বিষয়টি নিয়ে কথা হয়েছে। আজ বুধবার থেকে সরবরাহ পাওয়া যাবে এবং রোগীদের দেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন পৌরসভার পানিতে হয়ত কোন সমস্যা আছে এবং সেই পানি পান করেই পৌরবাসী ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। পানি পরীক্ষার জন্য পৌরসভাকে বলা হয়েছে। পৌরসভার সরবরাহ পানি ফুটিয়ে পান করার জন্য তিনি পৌরবাসীর প্রতি আহবান জানান।
এব্যাপারে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র সাইদুর রহমান জানান, বিষয়টি নিয়ে কাজ শুরু করেছে পৌরসভা। পানির পাইপ লাইন পরীক্ষা, ব্লিচিং পাওডার ব্যবহার, মাইকিংসহ জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। পানি পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানান, পৌরসভার চিকিৎসক ওয়ালিউল ইসলাম।