পিঠের সৌন্দর্য জরুরি কেন?

77

gourbangla logoত্বকের যত্ন বলতে আমরা শুধু বুঝি সুন্দর দাগহীন মসৃণ একটি মুখ আর যারা আরও একটু সচেতন তারা মাঝে মাঝে হাত পা বা গলারও একটু চর্চা করেন। কিন্তু পিঠের দিকে কি কেউ নজর দেই? অথচ আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ এটি।
পিঠের ত্বক রোদে পুড়ে কালো ছাপ পড়ে গেছে, অনেক ব্রণ আর সেরে যাওয়া ব্রণের দাগগুলো রয়ে গেছে, পুরো পিঠ খসখসে ত্বকের অবস্থা যদি এমন হয়, তবে কোনো অনুষ্ঠানে যাওয়ার সময় শাড়ির সঙ্গে একটু বড় গলার ব্লাউজ পরতে চাইলেও আমরা তা পারি না। এজন্য তৈরি হতে গিয়ে প্রথমেই মনটা খারাপ হয়ে যায়। তবে মন খারাপ করার কোনো কারণ নেই নিয়মিত সামান্য যতœ নিলেই আমরা পেতে পারি কাক্সিক্ষত কোমল দাগহীন উজ্জ্বল পিঠ। যা করবেন: প্রতিদিন দুইবার গোসল করুন, এসময় পিঠের ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করুন গোসলের আগে সপ্তাহে অন্তত ১ দিন করে… পিঠে একটু অলিভ বা মাস্টার্ড অয়েল মাসাজ করুন ত্বকের রোদে পোড়া ভাব দূর করতে চন্দন বাটা ১ টেবিল চামচ, টমেটোর রস ১ চা চামচ, শসার রস ১ চা চামচ একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে পিঠে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট ত্বকের শুষ্কভাব দূর করতে কমলা লেবুর শুকনো খোসা বেটে এর সঙ্গে তরল দুধ মিশিয়ে ত্বকে লাগান
পিঠের ত্বকে ব্রণ ও ডেড সেল দূর করতে স্ক্র্যাব হিসেবে ২ চামচ চালের গুঁড়া, ১ চা চামচ দই, ১ চা চামচ বেসন মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে পিঠে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট
ত্বক টান টান করতে ১টি ডিমের সাদা অংশ, ২ টেবিল চামচ দই, ২ চা-চামচ মুলতানি মাটির সঙ্গে ১ চা-চামচ মধু ও সামান্য বেকিং সোডা মিশিয়ে পিঠে মেখে রাখুন ২০ মিনিট।
এছাড়াও শসা, আলু, অ্যালোভেরা বা টমেটোর রস পিঠের ত্বকে ১০ মিনিট মেখে রাখতে পারেন।
পিঠের দাগ মেকআপ করে ঢাকতে চাইলে, স্কিনটোনর থেকে ২ শেড হালকা রঙের কনসিলার বেছে নিন। এরপর নরমাল ফাউন্ডেশন লাগাবেন। সবশেষ পাউডার দিয়ে সেট করে নিন।
রোদে বের হওয়ার আগে ত্বকের খোলা অংশে সানস্ক্রিন ক্রিম লাগান এবং সঙ্গে ছাতা ব্যবহার করুন।