ফাল্লুজায় কমান্ডারসহ ৭০ আইএস জঙ্গি নিহত

86

03-Falluja

ইরাকের আইএস অধিকৃত শহর ফাল্লুজায় যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট বাহিনীর হামলায় নগর কমান্ডারসহ ইসলামিক স্টেটের (আইএস) ৭০ জঙ্গি নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর এক মুখপাত্র। ফাল্লুজা পুনুরুদ্ধারে পাঁচদিন আগে শুরু হওয়া ইরাকি বাহিনীর অভিযানে সমর্থন দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট। আইএস-বিরোধী সামরিক অভিযানে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন বাহিনীর মুখপাত্র সেনাবাহিনীর কর্নেল স্টিভ ওয়ারেন গত শুক্রবার জানিয়েছেন, আগের চারদিনে ফাল্লুজায় ২০বার বিমান হামলা চালিয়েছে জোট বাহিনী। এতে দুইদিন আগে (বুধবার) ফাল্লুজার আইএস যোদ্ধাদের কমান্ডার মাহের আল-বিলাবি নিহত হয়েছেন।
তিনি বলেন, বিলাবি ও অন্যান্য জঙ্গিদের মৃত্যুতে শত্রুরা লড়াই থামিয়ে দিবে না, কিন্তু এটি তাদের জন্য একটি আঘাত। ইরাকের অবরুদ্ধ শহরটির বাসিন্দারা অনাহারে মারা যাচ্ছে, সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এমন খবরের প্রেক্ষিতে ইরাকি অভিযানে অংশ নেওয়া শিয়া বেসামরিক বাহিনীর এক নেতা ‘এ অবস্থা বেশিদিন চলবে না’ বলে দাবি করেছেন। রাজধানী বাগদাদের ৫০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আইএসের এই শক্তিকেন্দ্রটির দখল নিতে ‘কয়েক সপ্তাহ নয়, কয়েকদিনের মধ্যেই’ চূড়ান্ত লড়াই শুরু হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। শহরটি ঘিরে ফেলার মাধ্যমে সোমবার শুরু হওয়া অভিযানটির প্রথম ধাপ ইতোমধ্যেই প্রায় শেষ হয়েছে বলে জানান হাদি আল আমিরি। তিনি ইরান সমর্থিত শিয়া বেসামরিক বাহিনী বদর অর্গানাইজেশনের নেতা। অভিযান এলাকা থেকে ইরাকের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন তিনি। এ সময় তার পাশে ইরাকি প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদিও উপস্থিত ছিলেন। আবাদির পরনে ছিল ইরাকের সন্ত্রাস-বিরোধী বাহিনীর কালো ইউনিফর্ম, অপরদিকে আমিরি সামরিক ইউনিফর্মে ছিলেন। গত বছরের শেষ দিকে আবাদি বলেছিলেন, ২০১৬ সাল আইএসের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত বিজয়ের বছর হতে পারে। দুই বছর আগে ২০১৪ সালে ইরাক ও সিরিয়ার বিশাল অংশ দখল করে স্বঘোষিত ‘ইসলামি খিলাফত’ এর ঘোষণা দিয়েছিল আইএস। ওই বছরের জানুয়ারিতে আইএসের হাতে পতন হওয়া প্রথম ইরাকি শহর ছিল ফাল্লুজা।