বৃষ্টি না হলেও কমেছে সূর্যের তেজ, কিছুটা স্বস্তি জনমনে

Nawabganj gourbangla.com গৌড় বাংলা

দীর্ঘদিনের খরতাপের পর সোমবার দিন ভর সূর্যের তেজ যেন কিছুটা কমেছে, এতে কিছুটা স্বস্তিতে সাধারণ মানুষ। বরিবার বিকাল থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের আকাশ জুড়েই ছিল, বৃষ্টি নামবে এমন ঘনঘটা। দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জের তপ্ত প্রকৃতিতে শীতল করতে নামেনি বৃষ্টি। তবে কিছুটা হলেও সূর্যের তেজ কমেছে, ফলে কিছুটা হলেও স্বস্তির নি:শ্বাস নিচ্ছেন সাধারণ মানুষ।
শহরের শাহীবাগ এলাকার কাওসার নামে একজন বলেন, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জে রবিবার সন্ধায় বৃষ্টি হব হব ভাব মনে হলেও বৃষ্টি হয়নি। তবে আজ তিরফুট রোদ টা নায়, এতে কিছুটা ভালো লাগছে, তবে বৃষ্টি হওয়া দরকার। বৃষ্টি হলে শান্তি লাগবে।
শহরের বিশ্বরোড এলাকায় রিক্সা চালক হুসেন আলী বলেন, আজ রোদের তাপ একটু কম, আকাশের পানি হলে তাপ আরো কমবে, গরমে কাম কাজে খুবই কষ্ট হয়।
তবে বৃষ্টি আর কটা দিন পরে হলেই ভালো হয়, কাসিমপুর এলাকার কৃষক আমিনুর রহমান এমনটাই বলেন। দিনি বলেন, মাঠে ধান কাটাকাটি চলছে, এখন পানি হলে ধান তুলতে ম্যালা সমস্যা হবে।
বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে দেয়া তথ্য অনুয়ায়ী রবিবার রাজশাহী অঞ্চলের সর্বচ্চো তাপমাত্রা
৩৫.৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস থাকলেও সোমবার তা কমে দাঁড়ায় ৩২ ডিগ্রী সেলসিয়াসে।
এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রধান অর্থকরী ফসল আমের জন্য বৃষ্টি খুবই জরুরী বলে জানিয়েছেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. জমির উদ্দীন। তিনি বলেন বৃষ্টি হলে আমের আকার সুন্দর হবে, বৃষ্টিপাত না হওয়ার কারনে বাগান মালিকরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন।