ভোলাহাটে বিদ্যুতের ভেল্কীবাজি ॥ সরকারের উৎপাদিত বিদ্যুৎ গেলো কই

98

Bholahatসরকার দিন দিন বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি করলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাটে বিদ্যুতের ভেল্কীবাজিতে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। উপজেলায় দিনে প্রায় ৭/৮ বার বিদ্যুৎ আসা যাওয়া করায় অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স রুগী, প্রণি সম্পদ অফিস বিদ্যুৎ না থাকায় কোন কাজ করতে পারছে না। এ ছাড়া, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও প্রনি সম্পদে ফ্রিজে রাখার বেশ কিছু ঔষধ নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙকা রয়েছে। এ দিকে বর্তমানে স্নাতক ডিগ্রী ও এইচ এস সি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিদ্যুতের ভেল্কীবাজিতে রাতে পড়া লেখা করতে না পারায় পরীক্ষা খারাপ হওয়ার আশংকা রয়েছে।চলিত বোরো মৌসুমে বোরো চাষ শেষের দিকে হলেও এখনও অনেক জমিতে সেচ কাজ ব্যহত হচ্ছে। গত ২ বছরে ভোলাহাটে বিদ্যুতের কোন খাটতি না থাকলেও এ বছর লোড সেডিং হওয়ায় ৫৪৩৫ হেক্টোর জমিতে বোরো চাষে বিদ্যুৎ চালিত ২৪৩টি গভীর নলকূপে সেচ কাজের জন্য বার বার মটার পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জনতার দাবী বাংলাদেশ সরকার গত ২ বছরের তুলনায় এ বছর বিদ্যুৎ উৎপাদন বেশী হলেও কেন বিদ্যুৎ ভোলাহাট পাচ্ছে না কে বা কারা সরকারকে প্রশ্ন বিদ্ধ করছে। ভোলাহাট পল্লী বিদ্যুৎ সূত্র জানায়, ভোলাহাটে সাড়ে ৮ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পাওয়ার কথা কিন্তু পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ২ মেগাওয়াট। এলাকাবাসি সরকারের ভাবমূর্তিকে রক্ষা করতে দ্রুত বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিতের দাবী জানিয়েছেন।