ভারতে তীব্র হচ্ছে পানি সঙ্কট; মহারা্ের ১৪৪ ধারা

87

03-Indiaভারতের বিভিন্ন রাজ্যে পানি সঙ্কট তীব্র হচ্ছে। মহারা্েরর লাতুরে পানি নিয়ে সহিংসতার আশঙ্কায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। খাওয়ার পানির সঙ্কটজনিত কারণে সহিংসতার আশঙ্কায় এই প্রথম ভারতের কোনো এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হলো। আগামী ৩১ মে পর্যন্ত লাতুরে একসঙ্গে পাঁচ জনের বেশি মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গোছে, নিষেধাজ্ঞার আওতায় পানির ট্যাঙ্কি ভরার স্থান, সার্বজনিক পানির কূপ এবং পানির ট্যাঙ্ক চলাচলকারী রুট রয়েছে। কিছুদিন আগে কিছু লোক পানি ভরার জায়গা থেকে ট্যাঙ্কার লুট করার চো করে। এছাড়া বেশ কয়েকবার পানি ভরার স্থানে ভিড়ের কারণে ট্যাঙ্কারে পানি ভরতে সমস্যা সৃি হয়। এরপরই জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। লাতুর পৌরসভা এলাকায় ৭০টি এবং গ্রামীণ এলাকায় ২০০টি পানির ট্যাঙ্কার প্রতিদিন পানি সরবরাহ করলেও খরা কবলিত এলাকায় মানুষের মধ্যে পানির চাহিদা মেটাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন কর্মকর্তারা। গত চারমাস ধরে লাতুরের ধনেগাঁও জলসেচ প্রকল্প শুকিয়ে যাওয়ায় সেখানকার অধিবাসীরা ব্যাপক দুর্ভোগে পড়েছেন। এদিকে, কর্ণাটকের কুমটা তালুকে খাওয়ার পানি সরবরাহের দাবিতে আন্দোলন করতে গিয়ে প্রবল রোদের তাপে ৮৬ বছরের এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এই এলাকায় পানি সমস্যা প্রকট হওয়ায় বাসিন্দারা কয়েক বছর ধরে পানি সরবরাহের দাবিতে সরকারি দফতরের সামনে আন্দোলন করছেন। উত্তর প্রদেশের বদায়ুতে গত ১১ মার্চ সরকারি নলকূপ থেকে পানি সংগ্রহ করতে গিয়ে সংঘর্ষে ৩৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়। সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশের রায়সেনেও পানি নিয়ে সংঘর্ষে ৩ মহিলাসহ ৮ জন আহত হয়। কেরলের তিরুবনান্তপুরমসহ বেশ কিছু এলাকাতেও তীব্র পানি সঙ্কট দেখা দিয়েছে। বৃি না হওয়ায় এরইমধ্যে রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় দাবদাহ সৃি হয়েছে।