নদী খনন করে পানি সংরক্ষণ করা হবে

86

DSC06101 (Small)বিশ্ব পানি দিবসের সিম্পোজিয়ামে চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহিদুল ইসলাম বলেছেন, এই জেলার উপর প্রবাহিত নদী গুলোতে এবং খাল বিলে বর্ষার সময় অনেক পানি থাকে। কিন্তু খরার সময় পানি থাকে না। তাই নদী ও খালবিল গুলো খরর করে পানি সংরক্ষণ করা হবে। সারাদেশের নদী গুলো খনন করে বারমাস পানি নিশ্চিৎ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই উদ্যোগ নিয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘জল ও জীবিকার স্বীকৃতি: স্থানীয় প্রেক্ষিত’ শিরোনামে অনুষ্ঠিত সিম্পোজিয়ামে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেল্থ ও গ্রামীণ বহুমুখী উন্নয়ন সংস্থা-জিবাস এই কর্মসূচির আয়োজন করে।
সিম্পোজিয়ামে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, আরটিভির নিউজ এডিটর আনোয়ার হক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত মেয়র সাইদুর রহমান, জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী বাহার উদ্দিন মৃধা, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ এর আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক রবিউল হক, জিবাসের নির্বাহী পরিচালক তরিকুল ইসলাম টুকু প্রমূখ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের প্রধান অধ্যাপক দাউদ হোসেন। সিম্পোজিয়ামে বক্তারা বলেন, অধিক ফসল উৎপাদনের জন্য স্লুইস গেট নির্মাণ করে পুঁটিমারি বিলে পানি প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। ফলে এই বিলে আগের মত আর পানি থাকে না। নদী গুলো ভরাট হয়ে শুকিয়ে গেছে। বরেন্দ্র অঞ্চলে গভীর নলকুপে পানি তুলে সবুজায়ন এবং ফসল উৎপাদন হলেও পানির স্তর নেমে গেছে। নানাবিধ কারণে আর্সেনিকের ভয়াবহতা রয়েই গেছে। তাই পানি এবং পানিসম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার উন্নয়ন জরুরী হয়ে পড়েছে। বক্তারা আরও বলেন, সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা না করে পৌরসভার ড্রেনের পানি ৬টি পয়েন্ট দিয়ে সরাসরি নদীতে পড়ছে। এর ফলে যেটুকু পানি আছে তাও দুষিত হয়ে পড়ছে। সঠিক পরিকল্পনা করে পানির যথাযথ ব্যবহার ও অপচয় রোধ এবং পরিবেশ সংরক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন তারা। এতে অংশ নেন জনপ্রতিনিধি, জিও,এনজিও ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি এবং আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।
অপর দিকে সচেতন নাগরিক কমিটি-সনাক’র সহযোগিতায় ও নামোশংকরবাটী উচ্চ বিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিশ্ব পানি দিবস ২০১৬ উদযাপন ও স্বচ্ছতার জন্য নাগরিক (স্বজন) এর দুর্নীতিবিরোধী প্রচারণা উপলক্ষে সকালে নামোশংকরবাটী উচ্চ বিদ্যালয়ে রচনা, কুইজ ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। পানি দিবসের গুরুত্ব তুলে ধরা এবং শিক্ষার্থীদের দুর্নীতিবিরোধী চেতনায় উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসলাম কবির প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন। এ সময় সনাক সভাপতি সেলিনা বেগম, সনাক সহ-সভাপতি গৌরী চন্দ সিতু, গোলাম ফারুক মিথুনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। আগামী ২৮ মার্চ সকাল ১০ টায় বিদ্যালয়ে প্রতিযোগীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি ঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে বিশ্ব পানি দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা কারিতাসের ওয়াস প্রকল্পের আওতায় র‌্যালি,আলোচনাসভা, চিত্রাঙ্কন,রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের রোকনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রাঙ্গণে আয়োজিত আলোচনাসভায় সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক আলাউদ্দিন। এতে বক্তব্য রাখেন,সহকারী শিক্ষক খায়রুল আলম ও সাদিরুল ইসলাম,কারিতাসের জুনিয়র কর্মসূচী কর্মকর্তা গোলাম রসুল ও সাংবাদিক আতিকুল ইসলাম আজম।