অযৌক্তিক তাসকিন-সানির নিষেধাজ্ঞা: চ্যাপেল

62

07-ক্রিকেটে স্পষ্টভাষী মানুষ হিসেবেই পরিচিত ইয়ান চ্যাপেল। যে কাজ কিংবা সিদ্ধান্ত ক্রিকেটের সৌন্দর্য নষ্ট করে, তা নিয়ে সমালোচনা করতে বিন্দুমাত্র ভয় পান না তিনি। আরো একবার বেজে উঠল তার প্রতিবাদী কণ্ঠ। অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগে তাসকিন আহমেদ ও আরাফাত সানিকে সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ করায় আইসিসির সমালোচনায় মেতে উঠলেন চ্যাপেল। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সেরা দুই বোলারের নিষেধাজ্ঞাকে সম্পূর্ণ অযৌক্তিক বললেন অস্ট্রেলিয়ার এই কিংবদন্তি। বিশ্বকাপের মতো আসর চলাকালীন দুই অস্ত্রকে হারানো যে কোনো দলের জন্যই বড় ধাক্কা। আর ভারতে চলমান টি২০ বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসরে সেই ধকলটা সামাল দিতে হচ্ছে মাশরাফি বাহিনীকে। তবে যৌক্তিকভাবে আইসিসি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে কোনো কথা ছিল না। এ কথা শুধু চ্যাপেল নন, অনেকেই স্বীকার করে আসছেন। তাসকিন-সানির নিষেধাজ্ঞার কারণ খুঁজতে গিয়ে কোনো যুক্তি পাননি অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক। তার ওপর বিশ্বকাপের মতো আসরের মাঝপথে আইসিসির এমন কা-ের যৌক্তিকতা সন্ধান করতে গিয়ে ব্যথিত হয়ে পড়লেন চ্যাপেল। বাংলাদেশ দলের জন্য সমবেদনা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘তাসকিন ও সানিকে কেন নিষিদ্ধ করা হলো, তা আমার বোধগম্য নয়। আমি মনে করি না যে এর পেছনে কোনো যুক্তি আছে। তা ছাড়া বড় কোনো টুর্নামেন্ট চলাকালে এমন সিদ্ধান্ত বড্ড খারাপই বটে। বাংলাদেশ দলের জন্য রইল সমবেদনা। দলের গুরুত্বপূর্ণ দুজন বোলারকে হারানোর ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া তাদের জন্য সত্যিই কঠিন।’সোমবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে তাসকিন ও সানিকে ছাড়াই খেলবেন মাশরাফিরা। দলের সেরা দুই বোলারকে হারানোর চ্যালেঞ্জটা তাদের থেকেই যাচ্ছে। এখন দেখার বিষয়, সেই ধকলটা কাটিয়ে উঠতে পারেন কিনা টাইগাররা। উত্তরটা মিলবে রাতেই।