ভোলাহাটে অগ্নিকান্ডে একই পরিবারের ৩ জন আহত ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি

95

Photo-01 (Small)চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে আগুনে পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছে একটি পরিবার। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারটি হচ্ছে-উপজেলার গোহালবাড়ী ইউনিয়নের বেতপুকুর তিলোকী গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে আতাহার হোসেনের পরিবার।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, প্রতিদিনের মত শুক্রবার গোয়ালঘরে মশা তাড়ানোর জন্য আগুন জ্বালিয়ে দেয়া হয়। হঠাৎ রাত ১১টার দিকে গোয়ালঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। সেই সাথে তার বসতবাড়ীতেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে। পার্শ্ববর্তীরা ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও আতাহার ও তার স্ত্রী ফরিদা (৪০) এবং মেয়ে ফাতেমা (২৫) মারাত্মকভাবে আগুনে ঝলসে যায়। বর্তমানে আতাহার, তার স্ত্রী ও মেয়ে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ দিকে আতাহারের পরিবারের দু’জনসহ তার বসবাসরত টিনের ৪টি ঘর ও ঘরের সম্পূর্ণ মালামাল আগুনে পুরে ভস্মিভূত হয়। এ ছাড়াও ৩টি ছাগল ও ৩টি গরু আগুনে পুড়ে মারা যায়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩ লাখ ৮৫ হাজার টাকা বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।
এদিকে আগুনের সংবাদ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল হায়াত মো. রফিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তিনি আহত রোগীদের দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের চিকিৎসার জন্য ১০হাজার টাকা প্রদান করেন।
পরে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রভাষক আনোয়ারুল ইসলাম আনোয়ার আগুনে পুড়ে যাওয়া পরিবারটির খোঁজ-খবর নেন এবং হাসপাতালে গিয়ে আহতদের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল হায়াত মো. রফিক জানান, তৎক্ষণিক ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে চিকিৎসার জন্য ৫ হাজার করে ১০ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে। পরবর্তীতে বাড়ি র্নিমাণের জন্য আর্থীক সহায়তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে তিনি জানান ।
আগুনে পুড়ে যওিয়া পরিবারকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ইয়াসিন আলী শাহ্ গৃহ পূন:নির্মাণ ও আহতদের সুচিকিৎসার জন্য সার্বিক সহায়তা করবেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন।