আত্মগোপনে কেনিয়ায় স্থায়ী মমতা

71

04-

নব্বইয়ের দশকের আলোচিত অভিনেত্রী মমতা কুলকার্নি। ব্যাপক খোলামেলা ও নগ্নতা ছড়ানোর মাধ্যমে বেশ বিতর্কের মুখেও পড়েছিলেন তিনি। কিন্তু ২০০০ সালের পর থেকেই অনেকটা উধাও হয়ে যান এ অভিনেত্রী। মিডিয়া সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করেন পুরোপুরিভাবে। ভারত ছেড়ে তিনি আফ্রিকার দেশগুলোতে গিয়ে থাকা শুরু করেন। তবে ১০ বছর পর তার খোঁজ মেলে। এ সময়ে মিডিয়া ছেড়ে তপস্যায় ছিলেন মমতা। বিষয়টি অবাক করার মতো হলেও সত্যি। নিজেকে সম্পূর্ণ পরিবর্তন করে সাধিকারূপে আবির্ভূত হন তিনি। তবে একবারই তার ছবি মিডিয়ায় প্রকাশ পায়। কিন্তু এরপর কেনিয়ার মাদক পাচারের বাদশাহ খ্যাত ভিকি গোস্বামীর সঙ্গে মমতার বিয়ে হয়। ২০১৪ সালে ভিকি কেনিয়ান পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। ধরা পড়েন মমতাও। তবে খুব বেশিদিন তাকে কারাগারে থাকতে হয়নি। জামিন নিয়ে বেরিয়ে আসেন তিনি।
তবে তার একজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু সূত্রে জানা গেছে, মমতা এখনও কেনিয়াতেই আত্মগোপনে রয়েছেন। এমনকি নিজের নামও পরিবর্তন করে ফেলেছেন তিনি। পুলিশি ও মিডিয়ার ঝামেলা এড়াতেই এমনটা করছেন। কেনিয়ায় ভারতের বংশোদ্ভূত ব্যবসায়ী উরো পাটেলের ছত্রছায়ায় তিনি রয়েছেন। এমনকি তাদের সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ বলেও জানা গেছে। সম্প্রতি এমনই সংবাদ প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া। উরো পাটেলের সঙ্গে মিলে একটি প্রোডাকশন কোম্পানি শুরু করার কথাও ভাবছেন তিনি। তবে সেটাও হবে কেনিয়াভিত্তিক। মমতা কুলকার্নি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আর কখনও ভারতে ফিরবেন না। কেনিয়াতেই স্থায়ীভাবে বসবাস করবেন। তবে তিনি চান না মিডিয়ার সামনে আসতে। নিজেকে আড়াল করেই কাজ করতে চান তিনি।