আইএসকে পুরোপুরি উৎখাত করার অঙ্গীকার

121

7

জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) ইরাক থেকে পুরোপুরি উৎখাত করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল আবাদি। রোববার সে দেশের সরকারি সেনারা জিহাদিদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ রামাদি শহরটি পুনর্দখলে নেয়ার মাত্র একদিন পরেই তিনি এ ঘোষনা দিয়েছেন। ইরাকের সরকারি বাহিনী আইএসের কাছ থেকে দেশটির রামাদি শহর পুনর্দখলের পর টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে এ কথা জানিয়েছেন আবাদি।
সোমবার টিলিভিশনে প্রচারিত এক ভাষণে প্রধানমন্ত্রী আবাদি আইএস যোদ্ধাদের কাছ থেকে ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর হিসেবে পরিচিত মসুল উদ্ধারের শপথ ব্যক্ত করেন। তার ভাষায় জঙ্গিদের বিরুদ্ধে এটিই হবে তার সরকারের ‘কঠিন ও চূড়ান্ত আঘাত’। তিনি বলেন,‘২০১৬ সালের মধ্যে ইরাক থেকে দায়েশকে (আইএসের অন্য নাম) বিতাড়িত করা হবে। আমরা এবার মসুল অভিযান শুরু করব। এটিই হবে তাদের বিরুদ্ধে আমাদের কঠিন ও চূড়ান্ত আঘাত।’ রামাদি পুনর্দখলকে স্বাগত জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি। এর মধ্য দিয়ে আইএসের বড় ধরনের পরাজয় ঘটল বলে মনে করছেন তিনি। ‘অসাধারণ সাহস ও নৈপুণ্য প্রদর্শনের জন্য’ ইরাকের সেনাবাহিনীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। চলতি বছরের মে মাসে ইরাকি সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুদ্ধ করে সুন্নি মুসলমান অধ্যুষিত আনবার প্রদেশের রাজধানী রামাদি দখল করে আইএস সদস্যরা। গত কয়েক সপ্তাহের টানা যুদ্ধের পর অবশেষে শহরটির দখল আবারো ফিরে পেল ইরাক সরকার। রামাদির বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এখন লুকিয়ে থাকা আইএস সদস্যদের খুঁজছে সেনাবাহিনী। সোমবার দেশটির টিভি ফুটেজে রামাদির গুরুত্বপূর্ণ সরকারি ভবনে ইরাকি পতাকা উড়তে দেখা যায়। ইরাক সেনাবাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইয়াহিয়া রসুল রামাদি উদ্ধারকে ‘মহাকাব্যিক’ বিজয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তবে তিনি ওই লড়াইয়ে কতজন হতাহত হয়েছে সে বিষয়ে কিছু বলেননি।