চীনে দ্বিতীয় দফায় রেড অ্যালার্ট জারি

114

2. China

চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে শুক্রবার বায়ুদূষণের কারণে আবারও ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছে। এক সপ্তাহের কিছু বেশি আগে বেইজিংয়ে একই কারণে প্রমবারের মতো এ ধরনের ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করা হয়েছিল। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বেইজিং অতিরিক্ত বায়ু দূষণে আবৃত হতে পারে এ কারণে শনিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। সর্বোচ্চ পর্যায়ে সতর্কতার বিষয়টি নিশ্চিত করতে গাড়ি চলাচল এবং স্কুল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি’র খবরে বলা হয়েছে, দ্বিতীয় দফায় ‘রেড অ্যালার্ট’ জারির পরিপ্রেক্ষিতে বেইজিং আবহাওয়া সেবা বিভাগ জানিয়েছে, বায়ুদূষণের কারণে কাল শনিবার থেকে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজধানীতে ঘন ধোঁয়াশা থাকবে।কয়েক দশকে দেশটির অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য বিশাল বিশাল শিল্প কারখানা স্থাপণ করা হয়েছে। তবে বায়ুর বিভিন্ন স্তর, পানি ও মাটি দূষণ এবং অতিরিক্ত কুয়াশা কমাতে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার অঙ্গীকার করেছেন দেশটির নেতারা। চলতি সপ্তাহে প্যারিসে জলবায়ু বিষয়ে বিভিন্ন দেশের ঐক্যমতের পরেই চীনে এই রেড অ্যালার্ট জারি করা হলো। দেশটির জাতীয় আবহাওয়া কেন্দ্র জানিয়েছে, চীনের মধ্যাঞ্চলের জিয়ান থেকে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের হারবিন পর্যন্ত এলাকায় ধোঁয়াশার প্রভাব থাকবে। বেইজিংয়ে বায়ুদূষণ নিয়ে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থা জারির প্রেক্ষিতে গাড়ি চলাচল, কলকারখানা ও ভবনের কাজকর্ম সীমিত করে দেওয়া হয়েছে। সরকার সারা দেশে পরিবেশের ক্ষতিকর দূষণের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেছে।তবে শহরের বাসিন্দারা এ নিয়ে খুব অভিযোগ করেছেন। তাদের দাবী সরকার খুব ধীর পদক্ষেপে রেড অ্যালার্ট জারি করেছে। কুয়াশাচ্ছন্ন পরিবেশ থেকে যখন সহজেই পরিবেশ দূষণের বিষয়টি বোঝা গেছে তখনই সরকার পদক্ষেপ না নিয়ে অনেক পরে এমন গুরুত্ব বিষয়ের পদক্ষেপ নিয়েছে।

দুই বছর ধরে চীনে বায়ুদূষণের কারণে ধোঁয়াশা সৃষ্টির মতো বিপর্যয় দেখা দিচ্ছে। কয়লার ইঞ্জিনে চালিত শিল্পকারখানা, যানবাহনের ধোঁয়া, নির্মাণাধীন এলাকার ধুলাবালির কারণে চীনে ঘন ধোঁয়াশার সৃষ্টি হচ্ছে।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা প্রতি কিউবিক মিটারে ২৫ মাইক্রোগ্রামকে সর্বোচ্চ নিরাপদ মাত্রা হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। গত ৮ ডিসেম্বর এ্ মাত্রা ছিল ৩শর কাছাকাছি।এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) বেইজিং ও আশপাশের এলাকার বায়ুদূষণের ভয়াবহতা কমাতে সম্প্রতি চীনকে ৩০ কোটি ডলারের ঋণ সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।এডিবি বলেছে, বেইজিং ও সংলগ্ন এলাকার বাতাস এমন ভয়াবহ মাত্রায় দূষিত হয়ে পড়েছে যে তা জনস্বাস্থ্য ও টেকসই উন্নয়নকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দিয়েছে।