সৌদি আরবের নেতৃত্বে ৩৪ দেশের সন্ত্রাস বিরোধী জোট গঠন

85

8.Saudi Arabia

সন্ত্রাস মোকাবেলায় ৩৪টি দেশ এক হয়ে ইসলামিক সামরিক জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে সৌদি আরব। মঙ্গলবার রাষ্ট্রীয় এক যৌথ বিবৃতিতে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। সৌদি আরব সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে শক্তিশালী উপসাগরীয় দেশগুলো, মিশর ও তুরস্কসহ মোট ৩৪ দেশের সমন্বয়ে একটি জোট গঠন করলেও এ জোটে ইরানকে বাদ দেয়া হয়েছে।রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ’র খবরে মঙ্গলবার বলা হয়েছে, সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে সামরিক অভিযান সমন্বয় ও তাতে সহায়তা করতে সৌদি নেতৃত্বাধীন এ জোট গঠন করা হয়েছে। এ জোট হবে রিয়াদভিত্তিক। এই জোটের মধ্যে থাকবে আরব দেশ মিশর, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসলামিক দেশ তুরস্ক, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, উপসাগরীয় আরব দেশ ও আফ্রিকার মুসলিম দেশগুলো।

সৌদি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমান আল সৌদ রিয়াদে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এ জোট সন্ত্রাসবাদের পাশাপাশি ইসলামি বিশ্বের সমস্যা মোকাবেলা করবে এবং সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী লড়াইয়ে অংশীদার হবে। খবরে আরো বলা হয়েছে, ইন্দোনেশিয়াসহ আরো ১০ টি’রও বেশি মুসলিম দেশ এই জোটকে সহায়তা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।ইরাক ও সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেট (আইএস)’র বিরুদ্ধে যুদ্ধে ব্যাপক আন্তর্জাতিক অংশগ্রহণের আহবান জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, সিরিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সীমান্ত নিয়ন্ত্রণে দেশটির আরো বেশি কিছু করা প্রয়োজন এবং সৌদি আরব ও উপসাগরীয় দেশগুলো ইয়েমেন সংঘাতের কারণে মনোযোগ সরিয়ে রেখেছে। সন্ত্রাস মোকাবেলা এবং ইরাক ও সিরিয়াভিত্তিক সক্রিয় জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীর এই যৌথ ক্যাম্পেইনকে সবার সহযোগিতা করা উচিত বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।