হাসপাতালে চিকিৎসক নেই ময়নাতদন্তে বিলম্ব ২৫ ঘন্টার পর বড় ভাইয়ের লাশ নিয়ে বাড়ি গেল ছোট ভাই

88

Capture

চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে স্ত্রীর হাতে শুক্রবার রাতে খুন হওয়া দিলজান আলীর (৫০) লাশ ময়নাতদন্ত শেষে রবিবার দুপুর সোয়া ১ টার দিকে হাসপাতাল কতৃপক্ষ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে। হাসপাতালে চিকিৎসক না থাকার কারনে এই বিলম্ব হয়েছে বলে জানা গেছে।
হাসপাতালের সূত্রে জানা যায়, হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ড. সফিকুল ইসলামকে হঠাৎ নাচোল উপজেলা কমপ্লেক্সে বদলী করায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়। বিষয়টি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন ড. আলাউদ্দীন স্বীকার করেছেন।
দিলজান আলীর ছোট ভাই আব্দুস সবুর জানান,রবিবার দুপুর সোয়া ১ টার দিকে ময়নাতদন্ত শেষে আমার ভাইয়ের লাশ আমাদের বুঝিয়ে দেয় পুলিশ। তিনি আরো জানান, স্থানীয় গোরস্থানে রবিবার সাড়ে ৪ টার দিকে তার ভাই দিলজান আলীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে পারিবারিক দ্বন্দ্বের জের ধরে ভালাহাট উপজেলার মুশরিভুজা বারইপাড়ায় স্ত্রী কিকি বেগমের হাতে খুন হন দিলজান। এ ঘটনায় শনিবার ভোলাহাট থানায় হত্যা মামলার পর স্ত্রী ফিকি বেগমকে গ্রেফতার করে জেলা হাজতে পাঠানো হয়েছে।

ফলোআপ: হাসপাতালে চিকিৎসক নেই তাই হয়নি ময়না তদন্ত