চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার পানিতেই ব্যাকটেরিয়া, হাসপাতালে বাড়ছে ডয়রিয়া রোগী

ডাইরিয়া আক্রান্ত হয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে রোগীদের স্রোত যেন থামছেই না। গত বৃহস্পতিবার ০৯ এপ্রিল ২০১৫ দুপুর পর্যন্ত ৬১ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে দুপুরে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সদর উপজেলার ইসলামপুর এলাকার একরামুল হক নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টার দিকে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি হন। তবে হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ড. শফিকুল ইসলাম দাবি করেন, ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি করা হলেও একরামুল হক ডায়রিয়া রোগী

ছিলেন না।

DSC00306 (Custom)

হাসাপাতাল ঘুরে দেখা যায়, হাসপাতালের কোন বারান্দা ফাঁকা নেই, ১০ বেডের ডাইরিয়া ওয়ার্ড ছাড়িয়ে রোগীদের ঠাঁয় হয়েছে হাসাপতালের করিডোরে। এই সময় রোগীর স্বজনরা বলেন আরো রোগী আসলে শেষ পর্যন্ত হয়ত সাইকেল গ্যারেজে গিয়ে ঠেকবে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ৬১ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে, আবার অনেক ডাইরিয়া আক্রান্ত রোগি নিজ বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. আলাউদ্দীন জানান, গত শুক্রবার থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর সভার বিভিন্ন এলাকায় ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে দুই দিনে ১২০ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তিনি জানান, পৌরসভার সরবরাহকৃত যে পানি পরীক্ষার জন্য ঢাকায় ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল, তাতে ইকলাই ব্যকটেরিয়া পাওয়া গেছে। এ ব্যকটেরিয়াযুক্ত পানি পান করার কারনে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দিতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। এদিকে জনসাধারনকে বিশুদ্ধ পানি পানসহ সচেতন করতে শহরে মাইকিং করছে স্বাস্থ্য বিভাগ।