৪৪ বছর পর বেনজেমাই প্রথম

6

সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন বুনছিলেন করিম বেনজেমা। কিন্তু একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে চুরমার হয়ে গেছে সব। চোটের জন্য কাতার বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেছেন ফ্রান্সের তারকা স্ট্রাইকার। এতে ফিরে এসেছে ৪৪ বছর আগের স্মৃতি। ১৯৭৮ সালের পর এই প্রথম কোনো বিশ্বকাপ হচ্ছে, যেখানে খেলা হচ্ছে না বর্তমান ব্যালন ডি’অর জয়ীর। বেনজেমার আগে সবশেষ এমন অভিজ্ঞতা হয়েছিল ডেনমার্কের অ্যালান সিমনসেনের। ১৯৭৭ সালে ব্যালন ডি’অর জেতেন ওই সময়ে জার্মান ক্লাব বরুশিয়া মনশেনগ্লাডবাখে খেলা এই স্ট্রাইকার। পরের বছরের জুনে আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে খেলতে পারেননি তিনি। ডেনমার্ক সেবার বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি। ফাইনালে নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে প্রথমবার বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা। সেই থেকে ২০১৮ আসর পর্যন্ত প্রতিটি বিশ্বকাপেই খেলেছেন ওই সময়ের ব্যালন ডি’অর জয়ীরা। কাতার বিশ্বকাপ আগের আসরগুলির মতো জুন-জুলাইয়ে হলে ব্যালন ডি’অর জয়ী হিসেবে খেলতেন পুরস্কারটি রেকর্ড সাতবার জেতা লিওনেল মেসি।

আর্জেন্টাইন তারকা ২০২১ সালে বর্ষসেরার পুরস্কারটি জেতেন। প্রথমবারের মতো এবার কোনো বিশ্বকাপ হচ্ছে নভেম্বর-ডিসেম্বরে। বেনজেমা ২০২২ সালের ব্যালন ডি’অর জেতেন গত অক্টোবরে, ক্যারিয়ারে প্রথমবার। সিমনসেন ব্যালন ডি’অর জয়ী হিসেবে বিশ্বকাপে খেলতে পারেননি তার দল যোগ্যতা অর্জন করতে না পারায়। বেনজেমার ক্ষেত্রে তেমন কিছু ছিল না। ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নের মর্যাদায় কাতার আসরে খেলছে ফ্রান্স। গত মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও লা লিগা জয়ে বড় অবদান রাখা বেনজেমাকে চলতি মৌসুমের শুরু থেকে ভোগাচ্ছিল চোট। মৌসুমের শুরুতে তিনি চোট পান হাঁটুতে, পরে পায়ের পেশিতে। ফলে বিশ্বকাপের আগে ক্লাবের সবশেষ চার ম্যাচে খেলতে পারেননি ৩৪ বছর বয়সী স্ট্রাইকার। ওই চোট কাটিয়ে শনিবার পুরোদমে জাতীয় দলের সঙ্গে অনুশীলনে যোগ দেন তিনি। কিন্তু সেখানে নতুন করে ঊরুতে পাওয়া চোটের জন্য আসর থেকে ছিটকে পড়েন ফ্রান্সের হয়ে ২০১৪ বিশ্বকাপে খেলা এই ফুটবলার।