৩৭তম বিসিএসে সুপারিশপ্রাপ্ত ২৭ জনকে নিয়োগে হাইকোর্টের রুল

28

বিভিন্ন ক্যাডারে বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন কর্তৃক সুপারিশপ্রাপ্ত ৩৭তম বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে নিয়োগবঞ্চিত ২৭ প্রার্থীকে কেন নিয়োগ তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে পাবলিক সার্ভিস কমিশন কর্তৃক সুপারিশ করা স্ব স্ব ক্যাডারে তাদের কেন নিয়োগের নির্দেশ দেয়া হবে না তাও জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট বিবাদীদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
এ-সংক্রান্ত বিষয়ে করা রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে রবিবার হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।
আদালতে এদিন রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ ছিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল দেবাশীষ ভট্টাচার্য ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল নাসিম ইসলাম রাজু।
রুল জারির বিষয়টি নিশ্চিত করেন আইনজীবী ছিদ্দিক উল্লাহ্ মিয়া। তিনি জানান, ৩৭তম বিসিএসে পিএসসি সর্বমোট ১৩১৪ প্রার্থীকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের সুপারিশ প্রদান করা হয়। কিন্তু জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় বিগত ২০১৯ সালের ২০ মার্চ, ১৭ এপিল, ০৫ মে, ৩০ মে, ১৬ জুলাই, ২৯ জুলাই এবং ২০২০ সালের ১৮ মার্চ একাধিক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ১২৪৯ প্রার্থীকে বিভিন্ন পদে নিয়োগ প্রদান করলেও ২৭ জনকে এখন পর্যন্ত নিয়োগ দেয়া হয়নি। যদিও তারা নিয়োগপ্রাপ্তদের ন্যায় সকল নিয়মবিধি মেনে পিএসসির সব পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। তাই তাদের নিয়োগ না দেয়া সংবিধানের স্পষ্ট লঙ্ঘন।
রিটকারীগণ হলেন- নাইমুর রহমান, ইমরান হাসান, মেহরাব হোসেন, বিনজির ইকবাল, মো. রবাইয়ত ফেরদৌস, মো. হাসানুর রহমান, ফারহানা হোসাইন, কামাল হোসেন, এ এইচ এম ইমাম হোসাইন, রাকিব আহমেদ সৈয়দ, মো. আবদুর রশিদসহ অন্য প্রার্থীরা।