২০১৯-২০ অর্থবছরের মুদ্রানীতি ঘোষণা

20

২০১৯-২০ অর্থবছরের মুদ্রানীতি ঘোষণা করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ফজলে কবির। বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম সম্মেলন কক্ষে নতুন এ মুদ্রানীতি ঘোষণা করেন তিনি।
ফজলে কবির বলেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরের মুদ্রানীতিতে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ১৩ দশমিক ২০ শতাংশ। ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত ১৪ দশমিক ৮০ শতাংশ ধরা হয়েছে। তিনি বলেন, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত পাবলিক সেক্টরে ঋণ প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ২৫ দশমিক ২০ শতাংশ এবং ২০২০ সালের জুন পর্যন্ত ধরা হয়েছে ২৪ দশমিক ৩০ শতাংশ। একই সময়ে মূল্যস্ফীতি ধরা হয়েছে ৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। জিডিপির প্রবৃদ্ধি ধরা হয়েছে ৮ দশমিক ২০ শতাংশ।
সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল জানান, প্রবাসীদের বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠানোয় উৎসাহী করতে সরকার দুই শতাংশ প্রণোদনা দেয়ার যে ঘোষণা দিয়েছে, তা পেতে বছরে কম করে হলেও ১ হাজার ডলার দেশে পাঠাতে হবে। তিনি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীদের বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠাতে সরকার যে প্রণোদনা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, তার আলোকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে একটি নীতিমালা করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে পাঠানো হয়েছে।
আহমেদ জামাল বলেন, আমরা ওই নীতিমালায় প্রবাসীদের ২ শতাংশ হারে রেমিট্যান্স পাঠানোর প্রণোদনা দেয়ার জন্য বছরে সর্বনিম্ন ১ হাজার ডলার পাঠানোর কথা বলেছি। এটি আমাদের প্রাথমিক প্রস্তাব। অর্থ মন্ত্রণালয়ের যাচাই-বাছাইয়ের পরে তা কমবেশি হতে পারে।
বৈধপথে রেমিট্যান্স বাড়াতে সরকার ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে প্রবাসীদের দুই শতাংশ প্রণোদনা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে। সেই ঘোষণা বাস্তবায়নের হালনাগাদ তথ্য জানতে চাইলে ডেপুটি গর্ভনর একথা বলেন।