১৫ বছর পর এক ছবিতে শাহরুখ ও সালমান

120

07-salman-srkসালমান খান অভিনীত ‘টিউবলাইট’-এর সেটে তোলা শাহরুখ খানের কয়েকটি স্থিরচিত্র গত সপ্তাহে অনলাইনে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এর মাধ্যমে পরিষ্কার হয়েছে, ছবিটিতে শাহরুখকে দেখা যাবে বিশেষ একটি চরিত্রে। আহা, ভক্তদের জন্য কী দারুণ সুসংবাদ! খবরটি নিশ্চিত করেছেন এর আরেক অভিনেতা টিভি তারকা নাসির খান। তিনি হলেন কিংবদন্তি কৌতুকাভিনেতা জনি ওয়াকারের পুত্র। শাহরুখ, সালমান ও ‘টিউবলাইট’-এর পরিচালক কবির খানের সঙ্গে তোলা তিনটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন নাসির। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘ভারতীয় চলচ্চিত্রের দুই রাজার সঙ্গে। কিছুদিন আগে বাণিজ্য বিশ্লেষক কোমল নাহতা টুইটারে জানান, ‘টিউবলাইট’-এ শাহরুখ থাকছেন অতিথি চরিত্রে। সংবাদমাধ্যম ও ভক্তদের জন্য আবেগ ও উত্তেজনাকর বার্তা দিয়ে তিনি লিখেছেন, “নিশ্চিত খবর। পুরোপুরি দারুণ খবর। শাহরুখ খান গুরুত্বপূর্ণ অতিথি চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন সালমান খানের ‘টিউবলাইট’-এ। পরে অবশ্য তিনি টুইটটি মুছে ফেলেন। তারকাদের ছবি দিয়ে সাজানো একটি বর্ষপঞ্জিকার প্রকাশনা অনুষ্ঠানে প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে শাহরুখ বলেন, ‘আমিও খবরটা শুনেছি। আপনাদের উচিত প্রযোজকদের প্রশ্ন করা, তারাই সঠিক উত্তর দিতে পারবে। শাহরুখ খান ও সালমান খানকে ২০০২ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হাম তুমহারে হ্যায় সনম’ ছবির পর আর একফ্রেমে বড়পর্দায় দেখা যায়নি। নব্বই দশকের তুমুল ব্যবসাসফল ছবি ‘করণ অর্জুন’-এ একসঙ্গে অভিনয় করেন তারা। গত ১৩ জানুয়ারি এর ২১ বছর পূর্তি হয়েছে। এর আগে শাহরুখের ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’ (১৯৯৮) ছবিতে সালমান ছিলেন অতিথি চরিত্রে।
‘টিউবলাইট’ তৈরি হচ্ছে হিমালয়ের সীমানা নিয়ে বিরোধের জের ধরে ১৯৬৫ সালের ভারত-চীন যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে। এ বছরের রোজার ঈদ উপলক্ষে ২৩ অথবা ২৬ জুন মুক্তি পাবে এটি। এতে সালমানের সঙ্গে আছেন চীনা অভিনেত্রী চু চু। এ ছাড়া এটাই প্রয়াত ওম পুরির শেষ ছবি। কবির খানের পরিচালনায় এর আগে ‘এক থা টাইগার’ ও ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবিতে অভিনয় করেন সল্লু। দুটোই তুমুল ব্যবসা করেছে। দীর্ঘ ছয় বছর শাহরুখ ও সালমানের মধ্যে এমন বিরোধ ছিলো যে, কেউ কারও ছায়া পর্যন্ত মাড়াতেন না। তবে এক ইফতার পার্টিতে দু’জনে কোলাকুলি করে সব দ্বৈরথের ইতি টানেন। দুই বছর আগে সালমানের বোন অর্পিতা খানের বিয়েতে তারা হাতে হাত মেলান। এখন তাদের বন্ধুত্ব চোখে পড়ার মতো। সম্প্রতি সালমানের সঞ্চালনায় ‘বিগ বস টেন’ অনুষ্ঠানে ‘রায়ীস’ ছবির প্রচারণা করেছেন শাহরুখ। আগামী ২৫ জানুয়ারি শাহরুখের ‘রায়ীস’ ছবির সঙ্গে বক্স অফিস লড়াইয়ে নামছে হৃতিক রোশনের ‘কাবিল’। দু’জনকেই টুইটারে শুভকামনা জানিয়েছেন সালমান। ১৯৯৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত শাহরুখ ও সালমানের ‘করণ অর্জুন’-এ পরিচালক রাকেশ রোশনের পুত্র হৃতিক রোশন ছিলেন সহকারী পরিচালক। নব্বই দশকে একফ্রেমে (বাঁ থেকে) সালমান খান, হৃতিক রোশন ও শাহরুখ খান। সেই সময় শাহরুখ ও হৃতিকের সঙ্গে তোলা একটি স্থিরচিত্র টুইটারে শেয়ার করেছেন সালমান। ১৪ জানুয়ারি নায়ক হিসেবে হৃতিকের প্রথম ছবি ‘কহো না…পেয়ার হ্যায়’ মুক্তির ১৭ বছর পূর্ণ হয়েছে। টুইটে সেকথাও মনে করিয়ে দিয়েছেন সালমান। উত্তরে হৃতিক টুইট করেছেন, ‘সবসময় অনুপ্রাণিত করার জন্য সালমান খানকে ধন্যবাদ। আপনার শুভকামনা আমাদের উভয়ের বেলায় কাজ করুক। রাহুল ধোলাকিয়া পরিচালিত ‘রায়ীস’ তৈরি হয়েছে আহমেদাবাদের ডন আব্দুল লতিফের সত্যি জীবন অবলম্বনে। এতে নাম ভূমিকায় দেখা যাবে শাহরুখকে। তার বিপরীতে আছেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী মাহিরা খান। এ ছাড়াও অভিনয় করেছেন নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি।