১৫০০ মাছসহ ভেঙে পড়ল বার্লিনের বিখ্যাত অ্যাকুরিয়াম

3

জার্মানির রাজধানী বার্লিনে ১৫’শ মাছসহ ১০ লাখ লিটার পানি ধারণকারী একটি বিশাল অ্যাকুরিয়াম হঠাৎ বিস্ফোরিত হয়েছে। এ ঘটনায় আশপাশের কয়েকটি সড়কে পানি ও মাছ ছড়িয়ে পড়েছে। গত শুক্রবার স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ৫০ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। ডোমঅ্যাকুয়ারি কমপ্লেক্সের ওয়েবসাইটের তথ্য অনুযায়ী, এই ১৪ মিটার (৪৫ ফুট) লম্বা অ্যাকুরিয়ামটি বিশ্বের বৃহত্তম মুক্তভাবে দাঁড়ানো সিলিন্ডার আকৃতির অ্যাকুরিয়াম ছিল। এটিতে ১০ লাখ লিটারেরও বেশি পানি ছিল।

২০০৩ সালে এটি চালু করার পর বিশ্বের বৃহত্তম নলাকার অ্যাকুরিয়াম হিসেবে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম তোলে। অ্যাকোয়াডম নির্মাণের সময়কার প্রতিবেদন অনুযায়ী, এটি নির্মাণে প্রায় এক কোটি ২৮ লাখ ইউরো খরচ হয়েছিল। প্রতিবেদনে বলা হয়, ভোরের দিকে হঠাৎ করেই অ্যাকুরিয়ামটি বিস্ফোরিত হয়। পুলিশ বলছে, এ ঘটনায় বড় ক্ষতি হয়েছে। কাচের টুকরায় দুইজন আহত হয়েছেন। হোটেলের আশপাশের রাস্তায় প্রচুর পরিমাণে পানি ছড়িয়ে পড়ায় ওই এলাকায় মানুষকে সাবধানে গাড়ি চালাতে বলা হয়। শহরের গণপরিবহন কর্তৃপক্ষ জানায়, হোটেলের বাইরের রাস্তায় প্রচুর পরিমাণে পানি জমে থাকায় সেটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এবং ওই এলাকায় বর্তমানে ট্রাম পরিষেবাও বন্ধ রয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, হোটেলের হলঘরে বিপুল পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এই ঘটনার পর হোটেলের অতিথিরা ভবনটি ত্যাগ করতে শুরু করেন। তখন বার্লিনের প্রায় মাইনাস ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস শীতের মধ্যে তাদের আশ্রয়স্থলে নিয়ে যেতে অনেকগুলো বাস পাঠানো হয় সেখানে। বার্লিনের ফায়ার ব্রিগেড জানায়, এ ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় শতাধিক অগ্নিনির্বাপক কর্মী ছুটে যান। তবে অ্যাকুরিয়ামটি ভেঙে যাওয়ার কারণ জানাতে পারেনি কেউই। দর্শনার্থীদের ব্যবহারের জন্য অ্যাকুরিয়ামটির ভেতরে পরিষ্কার দেয়ালসহ একটি লিফট রয়েছে। এ ছাড়া হোটেলের কিছু কক্ষ থেকে অ্যাকোয়ারিয়ামের দৃশ্য উপভোগ করা যায় বলে হোটেলের বিজ্ঞাপনে প্রচার করা হয়।