১১ বছর পার করল রেডিও মহানন্দা

187

হাঁটিহাঁটি পা পা করে ১১তম বছর পার করল চাঁপাইনবাবগঞ্জের একমাত্র কমিউনিটি রেডিও-রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮ এফএম। এই ১১ বছরে জেলার একমাত্র ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যম হিসেবে গণমানুষের সেবায় নিয়োজিত থেকেছে রেডিও মহানন্দা। অনেক চড়াই উৎরাই পার করে ১২ বছরে পদার্পণ করল রেডিওটি। রেডিওটি সামাজিকযোগাযোগ মাধ্যমে লাইভ অনুষ্ঠান করায় ইতোমধ্যে দেশে এবং বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। ভবিষ্যতেও এর ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আরো যুগোযোগী সকল অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে জেলার গণ্ডি পেরিয়ে সারাদেশে এবং বিদেশেও কার্যক্রম বিস্তৃত করবে।
বুধবার বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত কেক কাটা, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তারা এমন কথা বলেছেন। এর পাশাপাশি কমিউনিটি টেলিভিশনের প্রয়োজনীয়তার কথাও উঠে আসে তাদের আলোচনায়। রেডিওটির অপরিসীম গুরুত্বের কথা তুলে ধরে পাশে থাকার প্রতিশ্রুতিও দেন অনুষ্ঠানে আগত অতিথি, ব্যবস্থাপনা কমিটি এবং স্রোতারা।

জেলাশহরের বেলেপুকুরে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নকীব হোসেন মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন-রেডিও মহানন্দা চাঁপাইনবাবগঞ্জবাসীর কণ্ঠস্বর, গণমানুষের প্রাণের প্রতিষ্ঠান, এ প্রতিষ্ঠান বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ, নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, মাদক প্রতিরোধ, নিরাপদ অভিবাসন, মানবপাচার প্রতিরোধ, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসহ নানা বিষয়ে সাধারণ মানুষকে সতেচন করে গড়ে তোলার কাজটি করছে এবং সরকারের এসডিজি বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। এছাড়াও সুস্থ বিনোদন দিচ্ছে গণমানুষকে।
রেডিও মহানন্দার প্রধান নির্বহী কর্মকর্তা এবং প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও নির্বাহী পরিচালক হাসিব হোসেনের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে কথা বলেন- চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও রেডিও মহানন্দার উপদেষ্টা কমিটির সভাপতি মো. রওশন আলী। তিনি বলেন-বাংলাদেশে হাতে গোনা কয়েকটি কমিউনিটি রেডিও রয়েছে তার মধ্যে রেডিও মহানন্দা অন্যতম। আমরা জানি যারা সঠিকভাবে কার্যক্রম পরিচালনা করতে ব্যর্থ হয় তাদের আয়ুষ্কাল বড়জোর তিন বছর হয়। কিন্তু রেডিও মহানন্দা ১১ বছর পার করেছে। আর এটা থেকেই বোঝা যায় এই রেডিওটি তাদের কার্যক্রম সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করেছে। সকল সেক্টরের আন্তরিকতা ও ভালোবাসায় আজ এ পর্য়ন্ত আসতে পেরেছে। আমি বিশ্বাস করি সরকারের উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরার পাশাপাশি, বাল্যবিয়ে, মাদকসহ সমাজের সমস্যাগুলো নিয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম সম্প্রচার করছে এবং ভবিষ্যতেও করবে।

তিনি বলেন-আমি জেনেছি, কোভিড-১৯ মহামারির সময়েও রেডিওটি তার কার্যক্রম চালিয়ে গেছে। করোনা সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করেছে। আমি আশা করব, আগামী দিনেও সরকারের উন্নয়ন কর্মকা- সম্প্রচারের পাশাপাশি সমাজ সচেতনতায় রেডিও মহানন্দা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার যে প্রত্যাশা তা পুরনে রেডিওটি ভূমিকা রাখবে। আগামীতে সকলের সহযোগিতা ও ভালোবাসায় রেডিও মহানন্দা আরো এগিয়ে যাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, দপ্তর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, উপদেষ্টা কমিটি, ব্যবস্থাপনা কমিটি, প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটি, নির্বাহী কমিটির সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান রেডিওটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিব হোসেন। তিনি বলেন- সরকারের যে নীতিমালা আছে সেই নীতিমালায় আর্থিক যে বিষয় আছে সেখানে ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করার কথা আছে কিন্তু সেগুলো বাস্তবায়ন করা হচ্ছে না সেই ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করা হলে শুধু রেডিও মহানন্দা নয় কমিউনিটি রেডিওগুলো জেগে উঠবে এবং কিছুটা হলেও আর্থিক সমস্যা কাটিয়ে উঠতে পারবে। আমরা করোনার মধ্যে এক মিনিটের জন্য রেডিও বন্ধ করিনি। করোনার দুর্যোগকে মোকাবেলা করে রেডিও চালানো আমাদের জন্য বড় চ্যালেঞ্জ ছিলো। তারপরও আমরা কাজ করেছি। আমরা গম্ভিরা করছি, উঠান বৈঠক করছি মানুষকে সচেতন করছি। প্রগতিকে ধরে রাখতে হলে সচল থাকতে হবে হাঁটতে হবে। আশা করি কমিউনিটির মানুষ এটাকে আরো ভালোভাবে ধারন করবে এবং এই ধারনের মধ্য দিয়ে আগামী দিনগুলো আরো সুন্দরভাবে জয় করবে।

অনুষ্ঠানে আরো কথা বলেন- জেলা তথ্য অফিসার ওয়াহেদুজ্জামান, গম্ভীরার নানা খ্যাত মাহবুবুল আলম, অনুভূতি ব্যক্ত করে কথা বলেন বিশিষ্ট নারী সংগঠক শামীমা সুলতানা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোসিকুল আলম বাবলু, জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ইয়াসমিন সুলতানা রুমা, রেডিওটির ব্যবস্থাপনা কমিটির আহ্বায়ক গোলাম ফারুক মিথুন, সদস্য ও সাপ্তাহিক সোনামসজিদ পত্রিকার সম্পাদক জোনাব আলী ও সদস্য রাইহানুল ইসলাম লুনা, স্টেশন ম্যানেজার আলেয়া ফেরদৌস, প্রয়াস মানিবক উন্নয়ন সোসাইটির কনিষ্ঠ সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ তাকিউর রহমান, দৈনিক গৌড়বাংলার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আজিজুর রহমান শিশির, বার্তা সম্পাদক সাজিদ তৌহিদ, দৈনিক চাঁপাই চিত্রের প্রধান প্রতিবেদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী, শিবগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি নূরতাজ আলম, শামিমা আখতার, মারুফ, সাগর আলী, জুবায়েরসহ অন্যরা।

সকালে জন্মদিনের গানের সাথে সাথে কেক কাটার মধ্য দিয়ে শুরু হয় প্রতিষ্ঠাবাষির্কীর আনুষ্ঠানিকতা। রেডিও মহানন্দার ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যবৃন্দ ও শুভাকাঙ্খীরা। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে ইচ্ছেদুয়ার অনুষ্ঠানের পুরস্কার বিজয়ীদের হাতে সার্টিফিকেট চাবির রিং ও মগ তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এরপর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয় এই আয়োজন। প্রয়াস ফোক থিয়েটার ইনস্টিটিউটের শিল্পীরা সংগীত পরিবেশন করেন।
উল্লেখ্য, বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষামূলক সম্প্রচারের মধ্য দিয়ে ২০১১ সালের ২৮ অক্টোবর এফ.এম. ৯৮.৮ মিটার ব্যান্ডে রেডিও মহানন্দা যাত্রা শুরু করে এবং ২৮ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিক সম্প্রচার শুরু হয়।