হেলেপড়েছে ৩০ ভাগ আমন ধান দুইদিনের টানা বর্ষণে জনজীবনে ভোগান্তি

41

গত শুক্রবার ও শনিবারের টানা বর্ষণে জনসাধারণকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে। বৃষ্টির সাথে দমকা হাওয়ায় প্রায় ৩০ ভাগ রোপা আমন মাটিতে হেলে পড়েছে। এতে ২ থেকে ৪ ভাগ ফলন কম হতে পারে বল আশঙ্কা করা হচ্ছে। বৃষ্টিপাতের কারণে রবি শস্যের আবাদও কিছুটা বিলম্বিত হতে পারে বলে ধারণা করছে কৃষি অফিস। তবে সব মিলিয়ে এই বৃষ্টিকে আশীর্বাদ হিসাবে দেখা হচ্ছে। শনিবার ভোর ৬টায় জেলায় গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৪৭ মিলিমিটার।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. মঞ্জুরুল হুদা জানান, শুক্রবার ও শনিবান টানা বর্ষণের সাথে বয়ে গেছে দমকা হাওয়া। বিশেষ করে শুক্রবার দিবাগত রাতে বৃষ্টির সাথে বয়ে যাওয়া দমকা হাওয়ায় প্রায় ৩০ ভাগ রোপাআমন ধান মাটিতে হেলে পড়েছে। এতে ২ থেকে ৪ ভাগ ফলন কম হতে পারে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই বৃষ্টির ফলে ধানে আর কোন সেচ লাগবে না, পোকামাকড়ও ধ্বংস হবে। তবে রবি শস্যের আবাদ কিছুটা বিলম্ব হতে পারে। তিনি জানান, শনিবার ভোর ৬টায় গড় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৪৭ মিলিমিটার। এর মধ্যে সব চেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে ভোলাহাটে। সেখানে রেকর্ড কা হয়েছে ৬৫ মিলিমিটার।