হাসপাতাল সমাজ সেবা কার্যক্রম : তিন লক্ষাধিক টাকার চিকিৎসা সহায়তা পেয়েছেন ২৭২জন দরিদ্র রোগী

68

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ৩ লক্ষাধিক টাকার চিকিৎসা সহায়তা পেয়েছেন ২৭২জন দরিদ্র রোগী। সমাজ সেবা অধিদপ্তরের হাসপাতাল সমাজ সেবা কার্যক্রমের আওতায় রোগী কল্যাণ সমিতির মাধ্যমে এ সেবা প্রদান করা হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতাল সামজ সেবা অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে দরিদ্র রোগীদের জন্য সাড়ে ৭ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া যায়। তার মধ্যে বিভিন্ন ধরনের রোগে আক্রান্ত ২৭২জন রোগীকে ৩ লাখ ৮ হাজার ৮৭৮ টাকার চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। প্রচার প্রচারণা কম থাকা, থাকলেও রোগীদের পক্ষ থেকে আবেদন না পাওয়ায় বেঁচে গেছে ৪ লাখ ৪১ হাজার ১২২ টাকা। তবে একই অর্থবছরের জুন মাসে সব চেয়ে বেশি রোগী এ সহায়তা নিয়েছেন বলে সূত্রটি জানিয়েছে।
ওই সূত্রটি আরো জানান, গত জুন মাসে ৩৮ জন রোগীকে ৪৬ হাজার ৪৫৫ টাকা চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। এর মধ্যে ওষুধ বাবদ ২৫ হাজার ৭৪৬ টাকা, অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া বাবদ ৬ হাজার ৩শ টাকা, শিশুদের জন্য দুধ বাবদ ৪ হাজার ১৬১ টাকা এবং রোগীদের বিভিন্ন ধরনের ডাক্তারি পরীক্ষা বাবদ ১০ হাজার ২৩০ টাকা প্রদান করা হয়।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক উম্মে কুলসুম বলেন- নিয়ম অনুযায়ি হাসপাতালে ভর্তি হওয়া দরিদ্র রোগীরা চিকিৎসকের মাধ্যমে সদর হাসপাতালে অবস্থিত রোগী কল্যাণ সমিতির নির্দিষ্ট ফরমে চিকিৎসা সহায়তার জন্য আবেদন করবে। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে যে ধরনের সহায়তা প্রয়োজন রোগী কল্যাণ সমিতি তার ব্যবস্থা করবে। তিনি আরো বলেন- প্রয়োজনের তুলনায় আমাদের জনবল অনেক কম থাকার পরও চেষ্টা করা হচ্ছে যাতে গরীব রোগীরা সেবাটা পায়। কিন্তু অনেক সময় দেখা যায়, অনেক রোগী মনে করে আবেদন করে সহায়তা নেয়া ঝামেলা তাই তারা আবেদন করেন না। তবে আগের তুলনায় এখন বেশি মানুষ এ সেবা নিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক সভায় জেলা প্রশাসক এ জেড এম নরূল হক দরিদ্র রোগীদের এ সেবা প্রাপ্তিতে প্রচার প্রচারণা জোরদার করার উপর গুরুত্বারোপ করে বলেছিলেন সরকারের অনেক সেবার বিষয়ে সাধারণ মানুষ এখনও জানে না। তাই যে যে দপ্তরের যা যা বিনামূল্যের সেবা রয়েছে সেবিষয়ে প্রচার প্রচারণা বাড়াতে হবে।