সড়ক দুর্ঘটনা রোধে আয়ারল্যান্ড ‘ভিশন জিরো’ কার্যক্রম

7

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে নানা কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে আয়ারল্যান্ড সরকারের সড়ক নিরাপত্তা বিভাগ। এর মধ্য দিয়ে আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে দেশটিতে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর হার শূন্যে আনতে ‘ভিশন জিরোর’ কার্যক্রম শুরু করছে আইরিশ সরকার। সড়কে আর কোনো অকালপ্রয়াণ না হোক। নিরাপদে ঘরে ফিরুক মানুষ। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে তাই বেশ শক্ত অবস্থানে আইরিশ সরকারের সড়ক ও নিরাপদ বিভাগ। ১৯৯৮ সালে প্রথম সড়ক নিরাপত্তা কৌশল চালু করে আয়ারল্যান্ড।

এতে আগের চেয়ে দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে যায়। তবে মৃত্যুর হার না কমায় নতুন নতুন আইন সংযোজন হচ্ছে আয়ারল্যান্ডে। সম্প্রতি দেশটিতে পঞ্চম নিরাপত্তা কৌশল সংযোজন করা হয়েছে। আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর হার শূন্যে নামিয়ে আনতে ‘ভিশন জিরো’ কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে সড়ক নিরাপদ বিভাগ। এর ধারাবাহিকতায় নেওয়া হয়েছে নানা পরিকল্পনাও।

প্রথম ধাপে ফুটপাতে গাড়ি পার্ক করলেই জরিমানা চল্লিশ ইউরো থেকে বাড়িয়ে দ্বিগুণ করেছে কর্তৃপক্ষ। সড়ক নিরাপদ করতে সরকারের এই কর্মপরিকল্পনায় দুর্ঘটনা অনেকটাই কমে যাবে বলে আশা প্রবাসী বাংলাদেশিদের। দেশটির সড়ক নিরাপত্তা প্রধান জানিয়েছেন নতুন নিরাপত্তা কৌশলটি আন্তর্জাতিক সেরা নিরাপত্তা কৌশল। এ ছাড়া সামনের বছরগুলোয় শহরে যানবাহনের গতিসীমা পঞ্চাশ থেকে কমিয়ে ত্রিশে আনাসহ কড়াকড়ি আরোপের সিদ্ধান্ত নেবে আইরিশ সরকার।