স্বপ্ন পূরণ হলো ইভানার

7

‘সব শিল্পীর জনপ্রিয় নাটকে কাজের স্বপ্ন থাকে। সেরকম আমারও ছিল। ব্যাচেলর পয়েন্ট এ সময়ের জনপ্রিয় ধারাবাহিক। এ নাটকে যুক্ত হয়ে যেন স্বপ্ন পূরণ হলো’। কাজল আরেফিন অমির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ ধারাবাহিকে কাজ করা প্রসঙ্গে এভাবেই বললেন অভিনেত্রী পারসা ইভানা। সম্প্রতি ধারাবাহিকটির চতুর্থ সিজন প্রচার শুরু হয়েছে। তবে চরিত্র সম্পর্কে কিছু বলতে নারাজ ইভানা। তিনি জানান, ‘এখনই কিছু বলব না। দর্শক নাটকটি দেখে জানবে কোন চরিত্রে অভিনয় করছি।’ ধারাবাহিকটির নতুন সিজন প্রচার উপলক্ষে নির্মাণ করা হয়েছে বিশেষ মিউজিক ভিডিও। সেখানে নাচ করতে দেখা গেছে ইভানাকে। নাচের মেয়ে হিসেবে ব্যাপারটি তার জন্য বেশ আনন্দের। ইভানা বলেন, ‘নাটকে কেউ কখনো আমাকে দিয়ে ক্লাসিক্যাল ড্রান্স করায়নি।

অমি ভাই এ সুযোগ দেওয়ায় তার প্রতি কৃতজ্ঞ। ব্যাপারটি আমার কাছে ভালো লেগেছে। আমি যে নাচতে পারি এটা অনেকেই হয়তো জানে না। তারা আমাকে নতুনভাবে দেখল।’ ব্যাচেলর পয়েন্ট নিয়ে সমালোচনাও করেন অনেকে। সেসব সমালোচনা কোনো প্রভাব ফেলবে কি না জানতে চাইলে ইভানা বলেন, ‘আমি কমেন্টস দেখা বন্ধ করে দিয়েছি। এসব পড়লে অভিনয় করতে সমস্যা হয়। সবার আমাকে ভালো লাগবে না। ভালো কাজ করলেও তারা পছন্দ করবে না। একসময় প্রচুর কমেন্ট পড়তাম এবং ডিপ্রেসড হতাম। এখন আর সেসব নিয়ে মাথা ঘামাই না।’ এদিকে ভালোবাসা দিবসে একটিমাত্র কাজ করেন পারসা ইভানা।

সেটি কাজল আরেফিন অমির ‘দই’। এ নাটকে তার চরিত্রের নাম শাবনূর। এ কাজটি নিয়ে ব্যাপক সাড়া মিলছে। ইভানা বলেন, ‘শাবনূর চরিত্রটি যারা নাটকটি দেখছে তারাই পছন্দ করছে। আমি নিজের সেরাটি দেওয়ার চেষ্টা করেছি। নাটকটিতে এত সাড়া পাব ভাবিনি। আমি খুবই খুশি। তবে এটা নিশ্চিত করতে চাই শাবনূরের সাথে ব্যাচেলর পয়েন্টের চরিত্রটির কোনো মিল নেই।’ এখন ঈদের কাজ করছেন ইভানা। পাশাপাশি চলছে ব্যাচেলর পয়েন্টের কাজ। ওয়েব প্ল্যাটফর্মে কাজের বিষয়েও ইতিবাচক তিনি। ইভানা জানান, ‘ভালো গল্প, ডিরেক্টর ও চিত্রনাট্য পেলে কাজ করব। আমার ইচ্ছে আছে এ প্ল্যাটফর্মে কাজ করার।’

যদিও বঙ্গের ‘বিয়ে করতে গিয়ে’ সিরিজে কাজ করেছেন তিনি। জানতেন না এটি ওয়েব প্ল্যাটফর্মে যাবে। সাড়াও পেয়েছেন কাজের মেয়ে চরিত্রে অভিনয় করে। ইভানা বলেন, ‘চরিত্রটি সবার সাথে যুক্ত। এটি কেন্দ্রীয় চরিত্র হয়ে গিয়েছিল। ইমরাউল রাফাত ভাইয়ের সাথে আমার সিঙ্ক ভালো। তাই কাজটি ভালো হয়েছে।’ নাটক থেকে সিনেমায় এসেছেন অনেকে। ইভানা এখনো সিনেমায় কাজের কথা ভাবছেন না। তার ভাষ্য, ‘নাটক থেকে এত ভালোবাসা পাচ্ছি, কখনো মনে হয় না সিনেমা করতেই হবে। তবে কেউ যদি মনে করেন আমাকে নিয়ে সিনেমা বানাবেন, আর গল্প ও চরিত্র পছন্দ হয় তাহলে করব।