স্পেসএক্স রকেট উড়ছে না এ বছর

66

05চলতি বছরের নভেম্বরেই ফের রকেট উৎক্ষেপণে ফেরার কথা থাকলেও এ বছর আর উড়ছে না স্পেসএক্স রকেট। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে এবার বলা হয়েছে সামনের বছর জানুয়ারির শুরুতেই তারা রকেট উৎক্ষেপণে ফিরবে। এ বছরের সেপ্টেম্বরে ইসরায়েলি স্যাটেলাইট বহনকারী একটি স্পেসএক্স ফ্যালকন ৯ রকেট বিধ্বস্ত হলে সেটির কারণ খতিয়ে দেখতে শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। এর আগে ইলন মাস্কের স্পেসএক্স-এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল নভেম্বরেই পুনরায় রকেট উৎক্ষেপণ শুরু করবে প্রতিষ্ঠানটি, জানিয়েছে সিএনএন। ৭ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠানের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “আমরা সেপ্টম্বরের ১ তারিখের দুর্ঘটনা তদন্তের শেষ পর্যায়ে রয়েছি এবং নিরাপদ রকেট উৎক্ষেপণে ফেরার শেষ পর্যায়ের কাজগুলো শেষ করছি।” চলতি বছরের ১ সেপ্টেম্বর কেপ ক্যানেভেরাল বিমান বাহিনী ঘাঁটির কেনেডি স্পেস সেন্টারের ঠিক দক্ষিণে অবস্থিত স্পেসএক্স-এর প্রধান লঞ্চ প্যাড ১ সেপ্টেম্বর দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়। একটি ফ্যালকন ৯ রকেটে পূর্বনির্ধারিত রুটিন প্রি-ফ্লাইট পরীক্ষার জন্য জ¦ালানী সরবারহ করার সময় আগুন ধরে যায় এবং বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে দুইশ’ কোটি ডলার মূল্যের একটি ইসরায়েলি কৃত্রিম উপগ্রহ ধ্বংস হয়ে যায়, যা ফেইসবুক আফ্রিকা ও অন্যান্য স্থানে ইন্টারনেট সেবা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে ব্যবহার করার পরিকল্পনা করেছিল। এ ঘটনা তদন্ত খতিয়ে দেখছে ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ)। এক্ষেত্রে স্পেসএক্স-কে উৎক্ষেপণ লাইসেন্স পরিবর্তিত করে দেবে সংস্থাটি। আর বিরল ঘটনায় সম্পূর্ণ নতুন লাইসেন্সও দেওয়া হতে পারে। দূর্ঘটনায় তদন্ত প্রক্রিয়ার ফলে স্পেসএক্স-এর ধার্য করা ৭০টি মিশনও পিছিয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই মিশনগুলোর মূল্য হিসাব করা হয়েছে এক হাজার কোটি মার্কিন ডলার।