‘স্পেশাল’ রোনালদোকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত জিদান

110

05-Real+Madridঅসাধারণ এক হ্যাটট্রিকে ভলফ্সবুর্গকে হারিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালে তোলা ক্রিস্তিয়ানো রোনালদোকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন অনেকেই। কোচ জিনেদিন জিদানের কাছে তিনি ‘বিশেষ খেলোয়াড়’। আর অধিনায়ক সের্হিও রামোস জানান, রোনালদো দেখিয়েছেন কেন তিনি ‘বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড়’।
নিজেদের মাঠ সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ে মঙ্গলবার রাতে কোয়ার্টার-ফাইনালের দ্বিতীয় পর্বে ভলফ্সবুর্গকে ৩-০ গোলে হারিয়ে সেমি-ফাইনালে ওঠে রিয়াল। জার্মান ক্লাবটির মাঠ থেকে প্রথম পর্বের ম্যাচটি ২-০ গোলে হেরে এসেছিল স্পেনের সফলতম ক্লাবটি। প্রথমার্ধে ৯০ সেকেন্ডের মধ্যে দুই গোল করে দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যান রোনালদো। রিয়ালের হয়ে ৩৭তম হ্যাটট্রিক পূর্ণ করা গোলটি ৭৭তম মিনিটে করেন পর্তুগাল অধিনায়ক। ম্যাচ শেষে জিদান বলেন, “রোনালদোকে নিয়ে আমি কী বলতে পারি? সে আবার দেখিয়েছে, সে-ই বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। সে স্পেশাল এক খেলোয়াড়।” “কিন্তু একই সঙ্গে ক্রিস্তিয়ানোর পুরো দলকে প্রয়োজন আছে।” পুরো দলের পারফরম্যান্সে খুশি জিদান।
“আমাদের ঐকান্তিকতা দেখাতে হতো। কিন্তু মাথাও খাটাতে হতো। সর্বোপরি আমার বার্তা ছিল ধৈর্য ধরে রাখার। আমি খুব খুশি এবং তারা আজ (মঙ্গলবার) রাতে যা কিছু করেছে তা নিয়ে খুব গর্বিত। এটা বিশেষ রাত ছিল, আমরা যা চাচ্ছিলাম তা অর্জন করেছি।”
ভলফ্সবুর্গের বিপক্ষে ম্যাচটিকে একপ্রকার যুদ্ধ হিসেবেই নিয়েছিল রিয়াল। বাঁচা-মরার এই লড়াইয়ের আগে রোনালদো সমর্থকদের জাদুকরী রাত উপহার দেওয়ার কথা বলেছিলেন। কথা রাখা রোনালদোর খেলায় ম্যাচ শেষে নিজের মুগ্ধতার কথা জানান রিয়ালের ডিফেন্ডার রামোস। “জাদুকরী এই রাতের নায়ক হওয়া ক্রিস্তিয়ানোর প্রাপ্য। সে এই জার্সির জন্য সবকিছু বিলিয়ে দেয়। সে এক নম্বর।” “ক্রিস্তিয়ানো আবার দেখিয়েছে, কেন সে বিশ্বের এক নম্বর।” এবারের আসরে এ নিয়ে তৃতীয় হ্যাটট্রিক করা রোনালদোর মোট গোল হলো ১৬টি। আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতার গোল এখন ৯৩টি। চলতি মৌসুমে রিয়ালের হয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪৬ গোল করেন তিনি।